হয়রানির জন্যই মিথ্যা মামলা: রফিকুল ইসলাম

0
48
Print Friendly, PDF & Email

উপজেলা নির্বাচনগুলোতে কেন্দ্র দখলের মহোৎসবকে আরো বেগবান করা এবং বিএনপির মুখ বন্ধ করার জন্যই সরকার বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া। আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায়  জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, বেগম খালেদা জিয়া যেন সরকারের বিভিন্ন অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে না পারে সেজন্য তাকে ও তার সন্তানকে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। একমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্যই সরকার  অবৈধভাবে এ চার্জ গঠন করেছে। যার কোনো আইনগত ভিত্তি নেই।

তিনি বলেন, আমরা জীবনে কোনোদিন দেখিনি একজন পিপি চার্জ গঠন করেন। কিন্তু বাস্তবে তাই হয়েছে। এজলাশে চার্জ গঠন করার কথা থাকলেও বিচারকের খাস কামরায় এই চার্জ গঠন করা হয়েছে।  যেহেতু আদালতে চার্জ উত্থাপন করা হয়নি তাই  আইনগতভাবে এই  চার্জ গঠনের কোনো বৈধতা নেই বলেও মন্তব্য  করেন তিনি। সরকারের প্রতি প্রশ্ন রেখে ব্যারিস্টার রফিক বলেন, এই মামলায় যে নতুন বিচারক বসানো হয়েছে সেটা কি দুদক বসিয়েছে নাকি আপনারা বসিয়েছেন? জাতি আপনাদের  কাছে জানতে চায়।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, আজকের  সংবাদপত্রগুলো ভালোভাবে দেখুন তারপর মন্তব্য করুন। এ সময় তিনি এইচটি ইমামের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, সৎ সাহস থাকলে বলুন সংবাদপত্রগুলো যে সংবাদ প্রকাশ করেছে  তা মিথ্যা।

সংগঠনের সভাপতি শামা ওবায়েদের সভাপতিত্বে মানবন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আহমেদ আজম খান, বিএনপির গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া,বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য  ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল প্রমুখ

শেয়ার করুন