নওগাঁয় ১৫ কোটি টাকা নিয়ে উধাও সংবাদ প্রকাশের পরও শাখা চালু রেখে কিস্তি তুলছে মাঠকর্মীরা

0
128
Print Friendly, PDF & Email

নওগাঁ প্রতিনিধি ঃ নওগাঁয় পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইট লি: নামে একটি সমবায়ী প্রতিষ্ঠান প্রায় ১৫ কোটি টাকা নিয়ে উধাও হওয়ার ঘটনায় গতকাল রবিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ সেই সভায় ৩১ সদস্য বিশিষ্ট এক কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ সভায় বলা হয় পলাতক মাল্টিপারপাসের সভাপতি আহম্মদ আলী, পরিচালনা পরিষদের সদস্য এমদাদ, তোফায়েল ও আতাউর রহমানকে যত দ্রুত সম্ভব আটক করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে৷ তবে এ ঘটনায় উক্ত প্রতিষ্ঠানের ৪ হাজার আমানতকারী দিশেহারা হয়ে পড়েছেন৷ অন্যদিকে ওই প্রতিষ্ঠানের মাঠকর্মি ও সমবায় অফিসের কর্মকর্তারা নিজেদের গা বাঁচাতে দফায়-দফায় গোপন বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছেন৷ এদিকে গত ২১ ও ২২ মার্চ দেশের বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পরও জেলার মহাদেবপুর উপজেলার চৌমাশিয়া নওহাটা বাজারের মোসলেম উদ্দীনের মার্কেটের ২য় তলায় প্রতিষ্ঠানের শাখাটির কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে শাখা ম্যানেজার ও মাঠকর্মীরা৷
এ বিষয়ে বেশ কয়েকজন আমানতকারী অভিযোগ করে বলেন, আমানতের টাকা ফেরত নেয়ার জন্য অফিসে কয়েকদিন থেকে ধর্ণা দিলেও তাদের কাউকে টাকা ফেরত না দিয়ে বিভিন্ন টালবাহানা করছে
এ বিষয়ে জেলা সমবায় কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমান সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার পর উত্তেজিত হয়ে বলেন, আপনাদের যা ইচ্ছা তাই লিখতে পারেন৷ আমরা যা বলি তা তো লিখেন না৷ তারপর একটু নম্র হয়ে বলেন, পপুলার মাল্টিপারপাস উধাও হওয়ার ঘটনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গতকাল রবিবার এক জরুরী সভায় ৩১ সদস্য বিশিষ্ট এক কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ জেলা প্রশাসক বলেছেন পালিয়ে যাওয়া চারজনের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে৷ সভায় জেলা প্রশাসক মো. এনামুল হক, পুলিশ সুপার কাইয়ুমুজ্জামান খানসহ প্রশাসনের অনেক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন৷
এ বিষয়ে সদর থানার ওসি জাহিদুল ইসলাম বলেন, জেলা সমবায় কর্মকর্তা উক্ত ঘটনায় থানায় ডায়েরী করায় বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে৷ তবে এখন পর্যন্ত কোন ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ করেনি৷
উল্ল্লেখ্য, গত ২০মার্চ দুপরে পপুলার মাল্টিপারপাস প্রতিষ্ঠানটির জেলার প্রধান অফিস বন্ধ করে ৪জন পরিচালক গা-ঢাকা দেয়ার খবর শহরে ছড়িয়ে পড়লে গ্রাহক ও কর্মীরা জেলা সমবায় অফিসের প্রধান কার্যালয় ঘেরাও করে৷ এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে৷#

শেয়ার করুন