দেশবাসী ঘৃণাভরে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে : ফখরুল

0
85
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকের বিতর্কিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন দেশবাসী অত্যন্ত ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে।

রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের একগুঁয়েমি, একরোখা নীতি এবং প্রহসনমূলক দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন দেশব্যাপী জনগণ প্রত্যাখ্যান করার মাধ্যমে সরকারের পরাজয় নিশ্চিত করেছে। একটি অর্থহীন, হাস্যকর ও সবার কাছে অগ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বর্তমান সরকার দেশবাসীর নিকট ধিকৃত হয়েছে।

তিনি বলেন, একদিকে বিএনপি চেয়ারপার্সনসহ বিরোধী দলীয় শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এবং ১৮ দলীয় জোটের হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দিয়ে জেলে অন্তরীণ রাখা হয়েছে। অপরদিকে আজকের ভোটারবিহীন একদলীয় ভাগাভাগির নির্বাচনী প্রহসনের নাটক মঞ্চায়ন জাতির কাছে এক কলঙ্কময় অধ্যায় হিসেবে পরিগণিত হয়ে থাকবে।

মির্জা আলমগীর বলেন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে চলমান আন্দোলনকে দাবিয়ে দিতে সরকার একের পর এক যৌথবাহিনী ও আওয়ামী সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিচ্ছে। বিরাধেী দলীয় নেত্রীকে গৃহবন্দী এবং দেশব্যাপী যে নিষ্ঠুর ও অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে তাতে জাতি আওয়ামী সরকারের ঘৃণ্য তান্ডবের প্রতি বীতশ্রদ্ধ।

তিনি বলেন, সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দলীয়ভাবে ব্যবহার এবং প্রশাসনযন্ত্রকে নিজেদের ইচ্ছামত সাজিয়ে আজকের প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত থাকার যে বাসনা করেছিল তা আজকের একদলীয় নির্বাচনকে স্বত:স্ফূর্তভাবে ‘না’ বলার মাধ্যমে জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে। ভোটারের উপস্থিতিবিহীন ভোটকেন্দ্রগুলোর প্রকৃত তথ্যচিত্র ইতোমধ্যেই দেশবাসীসহ গোটা বিশ্ববাসী প্রত্যক্ষ করেছে।

এসময় তিনি ভোটারবিহীন নির্বাচন বর্জনের আন্দোলনে শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবার ও স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এছাড়া গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে বিজয়ের পথে নিয়ে যেতে বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে ঐক্যবদ্ধ ও শান্তিপূর্ণভাবে চলমান অনির্দিষ্টকালের অবরোধ কর্মসূচি চালিয়ে যাবার উদাত্ত আহবান জানান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ।

শেয়ার করুন