ভোটকেন্দ্র পাহারায় নির্বাচন কর্মকর্তারা

0
113
Print Friendly, PDF & Email

আগামীকাল অনুষ্ঠেয় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট কেন্দ্রগুলো অক্ষত রাখতে আগাম ব্যবস্থা নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। শনিবার দুপুরের পর থেকে ঝুঁকিপূর্ণ এবং দুর্গম এলাকার ভোটকেন্দ্রগুলো পাহারায় যেতে শুরু করেছেন রির্টার্নিং ও প্রিজাইডিং অফিসাররা।

শুক্রবার গভীর রাত থেকে এ পর্যন্ত সারা দেশে ১৩২ জেলায় দেড় শতাধিক ভোট কেন্দ্র পেট্রোল বোমায় পুড়িয়ে দেওয়ার প্রেক্ষিতে আগাম এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, ভোট কেন্দ্রগুলো পাহারা দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন জরুরী এক বার্তায় জেলা রিটার্নিং অফিসার , স্থানীয় নির্বাচন কমিশন অফিসার, উপজেলা নির্বাচন কমিশন অফিসার এবং সহকারী রিটানির্ং অফিসারদের ভোটকেন্দ্রগুলো পাহারা দিতে বলা হয়েছে।

বিশেষ করে যে সব ভোট কেন্দ্র চরম ঝুঁকিপূর্ণ, দুর্গম এলাকা এবং বিরোধীদলীয় জোটের অপতৎপরতা বেশি সেই সব এলাকার ভোট কেন্দ্রগুলো পাহারাসহ বিশেষ নজরদারিতে রাখতে বলা হয়েছে রিটার্নিং অফিসারদের।

কমিশনের একটি সূত্র জানিয়েছেন, ভোট কেন্দ্র পাহারায় অতিরিক্ত পুলিশ চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে। বাতিল করা হয়েছে সকল পুলিশ সদস্যদের ছুটি। সন্ধ্যার মধ্যেই ভোট কেন্দ্রগুলোতে পুলিশ এবং আনসারদের পাহারা বসানো হয়েছে। রাতেই ভোটকেন্দ্র এলাকায় টহল জোরদার করবে র‌্যাব বিজিবি এবং সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা।

সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান রাইজিংবিডিকে বলেছেন, সারারাত ধরে ভোট কেন্দ্রগুলো পাহারা দেওয়া হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে রিটার্নি কর্মকর্তারাও ভোট কেন্দ্রগুলোতে নজরদারিতে থাকছেন। তিনি আরো বলেছেন, সাতক্ষীরায় যে ভয়াবহ পরিস্থিতি ছিল তা এখন একদমই নেই। পরিস্থিতি পাল্টেছে। ভোটাররা নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারবেন।

সুনামগঞ্জের জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম রাইজিংবিডি’কে বলেছেন, ভোট কেন্দ্র পাহারার জন্য আগে থেকেই কমিশনের নির্দেশনা ছিল। সেটা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন থাকলেও ভোটারদের নিরাপত্তার জন্য তারা বেশি চিন্তিত। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে আজও বৈঠক হয়েছে রিটার্নিং কর্মকর্তাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের। তারই আলোকে সন্ধ্যায় ভোটকেন্দ্রেগুলোতে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ দুপুরে বলেছেন, ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। এছাড়া নির্বাচন কমিশনের পক্ষে মোবাইলে রাষ্ট্রীয় এক এসএমএস বার্তায় বলা হয়েছে, ভোটকেন্দ্রগুলোতে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে যাতে ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেন।

শেয়ার করুন