ঝুলে যেতে পারে নিজামীর রায়

0
78
Print Friendly, PDF & Email

রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ থাকা মতিউর রহমান নিজামীর মামলার প্রধান বিচারকের চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে মঙ্গলবার। বিচারক অবসরে গেলে রায় প্রকাশ ঝুলে যেতে পারে। তবে, বিচারক অবসরে গেলেও রায় প্রকাশে সমস্যা হবে না বলে মনে করেন অ্যাটর্নি জেনারেল ও প্রসিকিউশন। অবসরে যাওয়া বিচারপতিকে পুনঃনিয়োগ দিতেও আইনি বাধা নেই বলে জানান তারা। ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন দুই আইন কর্মকর্তা।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে গত দুই বছর ধরে চলছে জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর যুদ্ধাপরাধের মামলা। ১৩ নভেম্বর থেকে মামলাটির রায় অপেক্ষমাণ রয়েছে।

এদিকে, ট্রাইব্যুনাল-এক এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এ টি এম ফজলে কবিরের চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩১ ডিসেম্বর। এতে করে রায়টি লেখা এবং প্রকাশ করায় দেরি হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে।

কিন্তু, ট্রাইব্যুনালের সিনিয়র প্রসিকিউটর সৈয়দ হায়দার আলী ও অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানান, নতুন নিয়োগ পাওয়া বিচারপতি বর্তমান অবস্থা থেকেই রায়টি শেষ করতে পারবেন।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আইনে পুনঃনিয়োগে কোনো বাধা নেই বলেও মনে করেন তারা।

সাঈদীর মামলায় স্কাইপিং নিয়ে সমলোচনার মুখে বিচারপতি নিজামুল হক সরে গেলে, এ টি এম ফজলে কবির দায়িত্ব নেন। পুরো বিচারিক প্রক্রিয়ায় না গিয়ে, পুনরায় যুক্তিতর্ক শেষে সাঈদীর মামলার রায় দেন তিনি।

শেয়ার করুন