‘গণতন্ত্রের অভিযাত্রা’য় বাধার প্রতিবাদে তিনটি দলের বিবৃতি সরকার নোংরাভাবে ফ্যাসিবাদী চেহারা প্রকাশ করেছে

0
130
Print Friendly, PDF & Email

বিরোধী দলের ‘গণতন্ত্রের অভিযাত্রা’ কর্মসূচি পালনে বাধা দিতে গিয়ে সরকার অত্যন্ত নোংরাভাবে নিজেদের ফ্যাসিবাদী চেহারা প্রকাশ করেছে বলে মন্তব্য করেছে বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি)।
গতকাল রোববার পৃথক বিবৃতিতে বিকল্পধারার সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জাতীয় পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমদ ও এলডিপির সভাপতি অলি আহমদ এ মন্তব্য করেন।
বি. চৌধুরী বলেন, ‘ঢাকা অভিযাত্রাকে স্তব্ধ করার জন্য সরকার যেসব পদ্ধতি ব্যবহার করেছে, তা দেশবাসীসহ পৃথিবীর মানুষ অবাক বিস্ময়ে দেখেছে। সরকার ঢাকা শহরকে একটি অবরুদ্ধ নগরীতে পরিণত করেছে। দেশের গৌরবের ধন সেনাবাহিনীকে অপব্যবহার করেছে। এর সবকিছুই গণতন্ত্রের জন্য ন্যক্কারজনক এবং নিকৃষ্ট উদাহরণ।’
কাজী জাফর তাঁর বিবৃতিতে বলেন, অভিযাত্রায় বাধা দিতে গিয়ে প্রশাসন হানাদার বাহিনীর মতো আচরণ করেছে। সুপ্রিম কোর্টের মতো পবিত্র আঙিনায় ও প্রেসক্লাবে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা ঢুকে যে কায়দায় আক্রমণ করেছে, তাতে দেশে সংবিধানসম্মত কোনো শাসনব্যবস্থা আছে বলে মনে হয় না। বিবৃতিতে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মনিরা বেগম ও কেন্দ্রীয় নেতা এস এম মিন্টুসহ ৩৫ জন নেতাকে পুলিশ আটক করেছে বলে দাবি করা হয়। অলি আহমদ বিবৃতিতে বলেন, দেশের সর্বত্র আজ যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত। আওয়ামী লীগের ক্যাডাররা সারা দেশে আইনজীবী, সাংবাদিক, পেশাজীবীসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ওপর অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে আক্রমণ করেছে।

শেয়ার করুন