বাংলাদেশ পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ অব্যাহত

0
35
Print Friendly, PDF & Email

জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ প্রকাশ অব্যাহত রয়েছে। ‘ভয়েস অব আমেরিকা’র অনলাইন ইংরেজি সংস্করণে প্রকাশিত সম্পাদকীয়তে এ কথা বলা হয়েছে। ‘ইলেকশনস ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক ওই সম্পাদকীয়তে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেন পসাকি’র বিবৃতি উদ্ধৃত করা হয়।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশী জনগণের দৃষ্টিতে অবাধ, সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক যে প্রতিশ্রুতি আছে তা প্রদর্শনের জন্য বাংলাদেশের সুযোগ আছে বলে বিশ্বাস করে যুক্তরাষ্ট্র। এতে বলা হয়, আলোচনা অব্যাহত রাখা এবং বাংলাদেশের জনগণের কাছে মূল্যবান একটি সমাধান বের করার জন্য বড় বড় রাজনৈতিক দলের প্রচেষ্টা দ্বিগুণ করার আহ্বান জানায় যুক্তরাষ্ট্র। জেন পসাকি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র হতাশার সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, ৫ই জানুয়ারি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অর্ধেকের বেশি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন প্রার্থীরা।

এ অবস্থায় অবাধ ও মুক্ত নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য এখনও বড় রাজনৈতিক দলগুলো সমঝোতায় আসেনি। এর প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র এ নির্বাচন পর্যবেক্ষণে কোন পর্যবেক্ষক পাঠাবে না। জেন পসাকি বলেন, পরে অধিকতর উপযোগী পরিবেশে এ প্রক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ফের যুক্ত হতে প্রস্তুত। এতে বলা হয়, সহিংসতা ও ভয়ভীতি মুক্ত পরিবেশে প্রতিনিধি নির্বাচনের অধিকার রাখেন বাংলাদেশের জনগণ।

জাতীয় নেতা, যারা নেতৃত্ব দেয়ার আশা করেন, তাদেরকে অবশ্যই আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি শান্ত রাখতে হবে। তাদের সমর্থকদের সহিংসতা, উস্কানিমূলক কথাবার্তা ও ভীতি প্রদর্শনে সমর্থন দেয়া বন্ধ করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সব রাজনৈতিক দল ও নাগরিককে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে শান্তিপূর্ণভাবে অংশগ্রহণের আহ্বান জানায়। এতে বলা হয়, কখনওই সহিংসতা গ্রহণযোগ্য নয়। এতে গণতন্ত্রের পথচলা বিঘ্নিত হয়। সব দল ও নাগরিকদের অবাধে ও শান্তিপূর্ণ উপায়ে তাদের দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশের অধিকার আছে।

এমন কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য সুযোগ করে দেয়ার জন্য দায়বদ্ধ সরকার। সমানভাবে, এমন সুযোগ শান্তিপূর্ণ উপায়ে ব্যবহারের জন্যও দায়ী বিরোধী দল।

শেয়ার করুন