যৌন নির্যাতনে অন্তঃসত্ত্বা চার ভাইয়ের এক বউ!

0
271
Print Friendly, PDF & Email

অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে তার তিন দেবরের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, অভিযোগ উঠেছে, এ কাজে ভাইদের মদদ দিয়েছে ওই গৃহবধূরেই স্বামী। ভারতের জামশেদপুরের বিরসানগরের ওই ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে নির্যাতিতার স্বামীকেও। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত তিন দেবরের নাম গৌতম, গোবিন্দ এবং গোপাল। তাদের দাদা অরজু গরাইয়ের সঙ্গে বছরখানেক আগে বিয়ে হয়েছিল ওই তরুণীর। পুলিশ জানায়, বিয়ের পর থেকেই পণের দাবিতে বাইশ বছর বয়সী ওই তরুণীর ওপর অত্যাচার শুরু করেন পেশায় মুরগির মাংস বিক্রেতা অরজু। শ্বশুরবাড়ির সবাই তাতে সামিল হয়। অত্যাচারের মাত্রা ক্রমে বাড়তেই থাকে। এক পর্যায়ে তার স্বামীর মদদে তিন দেবর তরুণীর উপর যৌন নির্যাতন শুরু করে। ক্রমেই তরণীর উপর তিন দেবরের যৌন নির্যাতন বাড়তে থাকে। তরুণীটি স্বামীর কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করে কোনো সদুত্তর পাননি। উল্টো স্বামী ভাইদের পক্ষ নিয়ে কথা বলেন। তদন্তকারীরা পুলিশ কর্মকর্তা জানান, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরেও দেবরদের অত্যাচারের হাত থেকে রেহাই পাননি ঐ গৃহবধূ। সন্তান প্রসবের পরেও চলেছে যৌন নির্যাতন। সোমবার রাতে বিরসানগর থানায় তিনি স্বামী ও দেবরদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, আমার স্বামী বিষয়টিতে গুরুত্ব দিতে চাইত না। আমাকে সব কিছু মেনে নেওয়ার জন্য চাপ দিত। তদন্তকারী ঐ কর্মকর্তা আরো জানান, সব কথা জেনে মেয়েকে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য অরজুদের বাড়িতে যান ঔ তরুণীর বাবার বাড়ির লোকেরা। কিন্তু তাদের বাধা দেয়া হয়। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে মনোমালিন্য এবং এক পর্যায়ে হাতাহাতি পর্যন্ত হয়। থানায় দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ঐ গৃহবধূকে শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন