আবারো একই সঙ্গে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা

0
95
Print Friendly, PDF & Email

আবারো একই সঙ্গে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গত ২২ নভেম্বর ঢাকা, চট্টগ্রাম ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা একই সঙ্গে হওয়ায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় তা পিছিয়ে ২৯ নভেম্বর নির্ধারণ করে।

১৮ দলের অবরোধের কারণে তা পিছিয়ে ৭ ডিসেম্বের নির্ধারণ করা হলে আবারো বিপাকে পড়ে দেশের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। কারণ ঐ দিন চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে ‘এইচ’ ১-৩ ইউনিট এবং সমুদ্র ও মৎস্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধীনে ‘জি’ ইউনিটের পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ ডিসেম্বর।

একই দিন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের দু’টি ইউনিটের এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি পূর্বর্নিধারিত রয়েছে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ৭ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৮টা থেকে প্রকৌশল অনুষদের অধীনে ‘এইচ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। দুপুর ১২টা থেকে শুরু হবে জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে ‘এফ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা।

এছাড়া ৮ ডিসেম্বরও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত আরো দু’টি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সেগুলো হলো বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে ‘সি’ ইউনিট এবং কৃষি অনুষদের অধীনে ‘জি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা।

এদিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি ৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষাও অনুষ্ঠিত হবে। চট্টগ্রামের অধিকাংশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীই এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফরম সংগ্রহ করেছে বলে জানা গেছে। একই দিনে পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করায় কোথায় পরীক্ষা দিতে যাবে তা নিয়ে সংশয়ে পড়েছেন ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকরা।

তারা বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পূর্ব র্নিধারিত ছিল। তাই সেখানে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার বিষয়টি আগে থেকেই ঠিক করে রাখা হয়েছে। কিন্তু চবি’র পরীক্ষা পিছিয়ে একই দিনে নির্ধারণ করায় কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দিতে যাব, তা নির্ধারণ করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর ফলে শিক্ষার্থীদের বঞ্চিত করা হবে বলেও তারা উল্লেখ করেন।

মোস্তফা কামাল নামের এক অভিভাবক অভিযোগ করে বলেন, আমার ছেলে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছে। কিন্তু এখন একই দিনে পরীক্ষা হওয়ায় কোনটাকে প্রধান্য দিব তা ঠিক করতে পারছি না।

রাবিতে গেলে চারটি ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে; আর চবিতে গেলে দিবে দু’টিতে। সব মিলিয়ে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি।

এ বিষয়ে চবির জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. খান তৌহিদ ওসমান বলেন, বিষয়টি আমরা বিবেচনা করছি। ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সুবিধা হয় এমন সিদ্ধান্তই গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন