সাতক্ষীরায় পুলিশের গুলিতে জামায়াতকর্মী নিহত

0
175
Print Friendly, PDF & Email

সাতক্ষীরায় পুলিশ ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষে এক জামায়াতকর্মী নিহত হয়েছেন। বুধবার ভোররাতে সদর উপজেলার আগরদাড়ি ইউনিয়নের আবাদের হাটখোলায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম শামসুর রহমান (৩৫)। তিনি শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল মাজেদের ছেলে।

জানা যায়, পুলিশ আসামি ধরতে মঙ্গলবার রাত ১২ টা থেকে সদরের আগরদাড়ি মাদ্রাসা এলাকায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টেরপেয়ে শত শত গ্রামবাসী সড়কে নেমে পড়ে। তারা সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে বিক্ষোভ করে। এসময় জনগণ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পুলিশ ৪ ঘণ্টা অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। পরে পুলিশ গ্রামবাসীকে লক্ষ্য করে রাবার বুলেট ও গুলি নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গ্রামবাসী ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে পুলিশের গুলিতে সড়কে দাড়িয়ে থাকা শামসুর রহমান নিহত হয়। এ সময় হাজারো গ্রামবাসী সড়কে বসে পড়ে। খবর পেয়ে সাতক্ষীরা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে অবরুদ্ধ পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে। ভোর ৫ টার দিকে পুলিশ জনতার বেরিকেড ভেঙ্গে অবরুদ্ধ থেকে মুক্ত হন।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোল্লা জাহাঙ্গীর হোসেন শীর্ষ নিউজকে জানান, আসামি ধরতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল গাফফার জানান, গত ৫ বছরের মধ্যে আগরদাড়িতে এটি পুলিশের সবচেয়ে বড় ধরনের অভিযান। পুলিশের গুলিতে নিহত শামসুর রহমান (৩৫) জামায়াতের কর্মী বলে তিনি দাবী করেছেন।

এদিকে সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সহসভাপতি সদরের আলিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন