চটেছেন ফখরুল

0
85
Print Friendly, PDF & Email

চলমান রাজনৈতিক সঙ্কটে ‘বেসামাল’ হয়ে পড়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রাজনৈতিক সমঝোতার বৈঠক নিয়ে গণমাধ্যমে যে সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে এর জন্যে সাংবাদিকদের ওপর ভীষণ চটেছেন ‘পরিচ্ছন্ন’ এ রাজনৈতিক নেতা।

রোববার রাত ১১টার দিকে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে বের হয়ে অপেক্ষমাণ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।

প্রথমেই তিনি বলেন, ‘আজকে আপনারা আবার কি লিখবেন ? আপনারা ভালো ম্যানুফেকচারিং করতে পারেন। আমি এটা অ্যাপ্রিসিয়েট করি যে, ভালো ক্রিয়েটিভিটি আছে। আমাদের দেশের মিডিয়া ভালো গল্প বানাতে পারে।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্বভাব সুলভ ভঙ্গিতে হাস্যোজ্জ্বল থাকলেও এ সময় তাকে অন্যরূপে দেখা গেছে ! একটি বেসরকারি টেলিভিশনের প্রতিবেদক মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ‘নো কমেন্টস’ বলে কার্যালয়ের ফটকের বাইরে যাবার সময় বের হয়ে যাওয়ার চিত্র ধারণ করতে উদ্যত হন দুই জন ক্যামেরাম্যান। তখন ফখরুল ইসলাম ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, এভাবে লাইট জ্বালিয়ে ছবি নেবেন না। এরপর বেরিয়ে গিয়ে আবারো ফিরে এসে তিনি বলেন, আপনারা এভাবে ছবি নিচ্ছেন, আপনারা কি সৈয়দ আশরাফের ছবি এভাবে নিতে পারবেন ?’

তিনি বলেন, ‘আমরা সাংবাদিকদের সম্মান করি, ভালোবাসি, কিন্তু আপনারা সাংবাদিকতার ইথিকস তো মেইনটেন করবেন।’ এমন উপদেশ দিয়ে ফটক দিয়ে বের হয়ে যান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সঙ্গে সঙ্গেই ফিরে এসে উপস্থিত সাংবাদিকদের তার সঙ্গে সৌজন্যতা বজায় রেখে কথা বলার পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, ‘মিনিমাম কারটেসি বজায় রাখবেন। এরপর থেকে আমার সঙ্গে কথা বলতে হলে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিবেন।’ তবে এজন্য কার সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে সে বিষয়ে কিছু বলেন নি তিনি।

ফখরুলের এমন আচরণে হতভম্ব হয়ে পড়েন উপস্থিত সংবাদকর্মী ও দলীয় নেতাকর্মীরা। এসময় বিএনপির সহ দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহীন, নির্বাহী কমিটির সদস্য খালেদা ইয়াসমিন ও তার ছেলে, যুবদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ফরহাদ হোসেন আজাদ, জাসাসের যুগ্ম মহাসচিব শামসুদ্দিন দিদার, ছাত্রদল নেতা মো. ইউনুস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চলে যাওয়ার পর তার পরামর্শ নিয়ে উপস্থিতদের মধ্যে আলোচনা হয়। এতে কয়েকজন নেতা দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘উনি (ফখরুল) একটু বেসামাল হয়ে পড়েছেন।’

দৈনিক সকালের খবর, দৈনিক মানবজমিন, দৈনিক আমাদের সময়, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন, দেশটিভি, মাছরাঙ্গা টিভি, বাংলামেইল২৪ডটকমসহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন