বদলে যাওয়া অপি করিম

0
80
Print Friendly, PDF & Email

ইদানীং অনেক পরিবর্তন এসেছে অভিনেত্রী অপি করিমের জীবনধারায়। টানা শুটিং, বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি শশব্যস্ত অপির জীবন এখন অনেকটাই বদলে গেছে।
আড়াই বছর আগেও অপিকে সকালবেলা ঘুম থেকে উঠেই ছুটতে হতো নাটকের শুটিংয়ে। আবার কখনো কখনো শুটিংয়ের ফাঁকে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া। পাশাপাশি ছিল টেলিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া।
কিন্তু অপির জীবনযাপন এখন বদলে গেছে। শুটিংয়ের ঝামেলা এখন আর নেই বললেই চলে। বলা যায় পুরোপুরিই বদলে গেছে অপির জীবনধারা। জার্মানি থেকে উচ্চশিক্ষা নিয়ে দেশে ফেরার পর অপি করিমের বদলের চিত্রটা ইদানীং বেশ ভালোভাবেই পরিলক্ষিত হচ্ছে। আর বদলে যাওয়ার মূল কারণটা হচ্ছে অভিনয়ের পরিবর্তে শিক্ষকতা নিয়ে ব্যস্ততা।
প্রথম আলো ডটকমকে অপি জানিয়েছেন, ‘আগের মতো এখন আর শুটিং করা হয় না। সকালবেলা উঠেই ছুটতে হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশে।’
অভিনয়জীবনের ব্যস্ত সময়ের শূন্যতা কেমন অনুভব করেন—জানতে চাইলে অপি বলেন, ‘অভিনয়ের কারণে নতুন নতুন কিছু গল্প পড়া হতো। শিক্ষকতা পেশার ব্যস্ততার কারণে এখন আর তা হয় না। বলা যায়, পড়ার সেই মুহূর্তগুলোকে খুব মিস করি।’
তাহলে কি অভিনয় ছেড়ে দিলেন? এমন প্রশ্নের জবাবে অপি বলেন, ‘আমার এখনকার যে ব্যস্ততা তার অবসরে যে সময়টুকু পাওয়া যাবে, সে সময়টাতে অবশ্যই অভিনয় করব। এ ক্ষেত্রে যাঁরা আমার ছুটির সময়টুকুর জন্য অপেক্ষা করে থাকেন, তাঁদের কাজগুলোই করে থাকি।

পড়াশোনার জন্য গত বছর থেকে জার্মানি আর বাংলাদেশে আসা-যাওয়া করেছেন অপি করিম। এরই ফাঁকে হাতেগোনা তিন-চারটির মতো নাটকেও অভিনয় করেছেন। চলতি বছর দুই ঈদে মিলিয়ে কয়েকটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনাও করেছেন তিনি। অপি বর্তমানে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপত্য বিভাগে শিক্ষক হিসেবে আছেন।

উল্লেখ্য, শিক্ষকতার ফাঁকে সম্প্রতি ভারত গিয়ে নতুন একটি বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং শেষ করে এসেছেন তিনি। সনৌক মিত্রের পরিচালনায় এই বিজ্ঞাপনটির প্রচার শুরু হয়েছে বলেও জানা গেছে।

শেয়ার করুন