স্বাভাবিকের পথে বিএনপি কার্যালয়

0
64
Print Friendly, PDF & Email

দুই দিন শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির পর এবার স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে বিএনপির দুটি কার্যালয় এবং চেয়াপারসনের বাসভবন।

উদ্বেগ-উৎকন্ঠার অবসান ঘটিয়ে গুলশানে বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার বাসভবনের সামনে থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য তুলে নেওয়া হয়েছে।

রোববার শেষ রাতের দিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মোতায়েন করা অতিরিক্ত সদস্যদের ফিরিয়ে নেওয়া হয়। একই সাথে বাসার পাশাপাশি গুলশানে বিরোধীদলীয় নেতার রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে থেকেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্যদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তবে দলের নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় কার্যত এখনো অবরুদ্ধ। তবে এখান থেকেও ধীরে ধীরে অতিরিক্ত পুলিশ প্রত্যাহার করে নেয়া হচ্ছে।

সন্ধ্যা আটটায় এ রিপোর্ট লেখার পর্যন্ত তিনটি জায়গার এই চিত্র দেখা গেছে।

বিকেলে গুলশানের ৭৯ নম্বর সড়কে বিরোধীদলীয় নেতার বাসার সামনে গিয়ে দেখা গেছে, চেয়ারপারসনের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত নিয়মিত নিরাপত্তাকর্মীরাই শুধু সেখানে দায়িত্ব পালন করছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীদের অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে।

গত শুক্রবার রাত থেকে চেয়ারপারসনের বাসায় আশপাশে যেসব পোশাকধারী ও সাদা পোশাকের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত ছিল তাদের দেখা যায়নি।

এদিকে এখনো পুরোপুরি নেতাকর্মী শূণ্য বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়টি। কার্যালয়ের ভিতরে আছেন দপ্তরের দায়িত্বে থাকা বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী। এছাড়া প্রায় সারাদিনই গোয়েন্দা পুলিশের তীক্ষ্ম দৃষ্টি ছিলো বিএনপির এই কার্যালয় ঘিরে।

শুক্রবার রাতে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ, এম কে আনোয়ার, রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতারের পর রাত একটার দিকে গুলশান কার্যালয় থেকে বের হওয়ার সময় আব্দুল আউয়াল মিন্টু এবং শিমুল বিশ্বাসকে আটকের ঘঁটনায় আতঙ্কে ছিলো গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়টি।

সেখানকার পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক হয়েছে বলে রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান।

শেয়ার করুন