‘খালেদার গায়ে আঁচড় লাগলে দেশব্যাপী আগুন জ্বলবে’

0
44
Print Friendly, PDF & Email

বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার গায়ে যদি একটি আঁচড় লাগে তবে দেশব্যাপী আগুন জ্বলবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন দলের নারী সংসদ সদস্য সৈয়দ আশিফা আশরাফি পাপিয়া।

রোববার সকাল ১০টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

পাপিয়া বলেন, ‘সরকারের গুন্ডারা ও পুলিশ বাহিনী খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তারা হিটলারের ন্যাৎসী বাহিনীর মতো বর্বর আচারণ চালাচ্ছে। দেশ নেত্রী খালেদা জিয়া গণমানুষের নেত্রী। তার গায়ে যদি একটা আঁচড় পরে দেশব্যাপী আগুন জ্বলবে। এ আগুন ভারতও নেভাতে পারবে না।’

সমাবেশে রাশেদা বেগম হীরা বলেন, ‘বর্তমানে সংবিধান বলতে কিছু নেই। তারা মনের মাধুরী মিশিয়ে সংবিধান সংশোধন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী আজীবন প্রধানমন্ত্রী থাকার জন্য ইচ্ছা মতো সংবিধান পরিবর্তন করছেন। তিনি জনগণের টাকা খেয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। তারা বিভিন্নভাবে লুটেপুটে খাচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সরকার সংবিধান লংঘন করছেন। সংসদ চলাকালে সংসদ সদস্য মওদুদ আহমেদ ও এম কে আনোয়ারকে গ্রেপ্তার করে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। শেখ হাসিনা গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করতে পারবেন না। জনগণ খেপে গেলে তিনি ভারত পালানোর পথ পাবে না।’

এসময় নারী নেত্রীরা গ্রেপ্তারকৃত সব নেতার মুক্তি দাবি করেন এবং খালেদা জিয়াসহ সব নেতাদের বাড়ি থেকে পুলিশ ও র‌্যাব প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

সমাবেশের আগে বিএনপি নেতৃত্বাধীন টানা ৮৪ ঘণ্টা হরতালের প্রথম দিনে সংসদ ভবন এলাকায় হরতাল সমর্থনে একটি মিছিল বের করেন নারী সংসদ সদস্যরা। মিছিলটি পুলিশের বাধা পেয়ে পুনরায় সংসদ ভবন এলাকায় ফিরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।

মিছিলে আরো অংশ নেন সংসদ সদস্য রেহনা আক্তার রানু, নিলুফার ইয়াসমিন মনি এবং শাম্মী আক্তার।

শেয়ার করুন