‘খালেদা গৃহবন্দী’

0
51
Print Friendly, PDF & Email

সরকার আন্দোলন ও গণঅভ্যুত্থানের ভয়ে গণগ্রেপ্তার শুরু করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রোববার সকাল সাড়ে ৭ টায় নয়া পল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিনি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন।

রিজভী বলেন, “চলমান আন্দোলনকে থামানোর জন্য বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর সরকার যে রকম নির্যাতন ও নিপীড়ন করছে তাতে আমরা প্রাণনাশের ভয়ে আছি।”

তিনি বলেন, “জনমনে আজ প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, কেনো বিরোধী দলীয় নেতাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে।”

এদিকে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা ৮৪ ঘণ্টা হরতালে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আগের মতোই পুলিশ পাহাড়া রয়েছে। সাদা পোশাকে পুলিশ ও র‍্যাবও রয়েছে। তবে ব্যাতিক্রম হলো এর আগের হরতাল গুলোতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল গেটের সামনে নেতাকর্মীদের বসে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু এ হরতালে সকাল থেকে এ দৃশ্য দেখা যায়নি। বরং মূল গেটের ভেতর থেকে তালা মেরে রাখা হয়েছে। এছাড়া গত দুটি হরতালে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উপস্থিত থাকলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি আসেননি। তবে রিজভীসহ গুটি কয়েক নেতাকর্মী কার্যালয়ে অবস্থান করছেন।

শেয়ার করুন