খালেদাকে গ্রেফতারের বিষয়টি ভেবে দেখা হচ্ছে: ইনু

0
59
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির পাঁচ নেতাকে গ্রেফতারের পর দলের চেয়ারপারসসন বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি ভেবে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

শনিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইনু এ কথা জানান। মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমার ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানে আয়োজন করে মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমার ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন জাতীয় কমিটি।

ইনু বলেন, “বিএনপির পাঁচ নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে হরতালে মানুষ মরার মদদদাতা হিসেবে। কারণ মানুষ মারার দায় তারা এড়াতে পারেন না। দলের শীর্ষনেতা হিসেবে এই দায়ভার তাদের নিতে হবে।”

তিনি বলেন, “কোনো শর্ত ছাড়া সংলাপ আহ্বান জানানো হলেও বিএনপি তাতে সাড়া না দিয়ে ক্রমাগত হরতাল দিয়ে যাচ্ছ।”

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বর্তমানে দেশকে তেঁতুল হুজুর ও যুদ্ধাপরাধী জামায়াত ইসলামীর কাছে সঁপে দেবার পরিকল্পনা হচ্ছে। এর নেতৃত্ব দিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। তাদের প্রতিহত করতে হবে।”

মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা সম্পর্কে ইনু বলেন, “মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা শুধু আদিবাসীদের নেতা ছিলেন না তিনি ছিলেন জাতীয় নেতা। তাকে সে সম্মান দেয়া উচিত। পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করতে হলে বাস্তব সম্মত ভূমি কমিশন, আদিবাসী ভূমি কমিশন ও অধিকার আইন এই তিনটি বিষয়ের প্রয়োজন।”

অনুষ্ঠানে জাতীয় কমিটির ঘোষণাপত্র পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস।

মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমার ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক নুমান আহম্মেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান, অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী, দৈনিক সমকালের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আবু সাইদ খান, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড শাহ আলম, ওয়ার্কাস পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য বিমল বিশ্বাস, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিব দ্রংসহ আধিবাসী বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

শেয়ার করুন