খালেদা জিয়াকে সৈয়দ আশরাফ, এনি টাইম দাওয়াতে চলে আসুন

0
47
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে যেকোনো সময় আলোচনার আসার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, ‘আপনি অ্যানি টাইম আমাদের দাওয়াতে চলে আসতে পারেন। আর দাওয়াতের প্রয়োজন নাই।’

রবিবার জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি এসব কথা বলেন।

সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘আমাদের দাওয়াত তো অব্যাহত রয়েছে। যেদিন তিনি সময় পাবেন, সেদিনই তিনি আসবেন। অপ্রয়োজনে তো হরতাল ডাকার দরকার নেই। আলোচনার মাধ্যমে এ সংকটের নিরসন হবে।’

জাতীয় নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছেলে সৈয়দ আশরাফ বলেন, নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করাই ছিল জাতীয় চার নেতার সবচেয়ে বড় অপরাধ। যার জন্য তাঁদের হত্যা করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আগামীবার ক্ষমতায় এসে জেল হত্যার বিচার করবে। জিয়া ও এরশাদ ক্ষমতায় এসে এ বিচার কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত করেছে।

সংলাপ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া সংলাপ নয় সংঘাত চান। তিনি সংঘাতের মধ্য দিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চান। বিএনপি সংলাপে না আসলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর অধীনে সর্বদলীয় সরকার গঠন করে নির্ধারণী সময়ে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

এর আগে সকাল সাড়ে সাতটায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর তিনি আওয়ামী লীগের প্রধান হিসেবে দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় তিনি দোয়া ও মোনাজাত করেন এবং নীরবে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকেন।

১৯৭৫ সালের এই দিনে এক ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী অবস্থায় হত্যা করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনাকারী জাতীয় চার নেতা বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ, মন্ত্রিসভার সদস্য ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী এবং এ এইচ এম কামরুজ্জামানকে। দিনটি জাতির ইতিহাসে একটি কলঙ্কময় ও বেদনাবিধুর দিন।

শেয়ার করুন