অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পথ দু’দলই খুঁজে বের করবে : মজীনা

0
39
Print Friendly, PDF & Email

বাংলাদেশের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পথ  প্রধান দুই রাজনৈতিক দলই খুঁজে বের করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা। বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা মেঘনা ঘাট এলাকায় বেসরকারিভাবে নির্মিত সামিট পাওয়ার লিমিটেডের বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় মজীনার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত এইচ ই মাইকেল ট্রিনকিউর।
মজীনা সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র অব্যাহত রাখতে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রণের মাধ্যমে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন মার্কিন সরকারও প্রত্যাশা করে। এজন্য দলগুলোর মধ্যে আলোচনা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।
মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার বাণিজ্যিক প্রবেশপথ। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ আঞ্চলিক বাণিজ্যিক উন্নয়নের মধ্য অবস্থানে রয়েছে। বাংলাদেশ একসময় এশিয়ার মধ্যে একটি উন্নত দেশ হিসাবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।
তিনি আরো বলেন, অর্থনৈতিকভাবে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ এখন দক্ষিণ এশিয়ার টাইগারে পরিণত হয়েছে। এদেশে প্রচুর খনিজ সম্পদ রয়েছে। এসব সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার করা হলে দেশ আরো সমৃদ্ধ হবে। তবে এক্ষেত্রে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। এ বিষয়ে মার্কিন সরকার বাংলাদেশকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত।
উল্লেখ্য, সামিট পাওয়ার গ্রুপ মেঘনা ঘাট এলাকায় ৩৪৫ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করছে। যা আগামী নভেম্বর মাসের মধ্যে উৎপাদনে আসতে পারবে। এ কেন্দ্র থেকে ৩৩৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রীডে দিতে ইতোমধ্যে সরকারের সঙ্গে এ প্রতিষ্ঠানের চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। ফ্রান্সের সহায়তায় এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরিতে খরচ পড়বে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি ঘুরে দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার, সামিট পাওয়া লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আজিজ খান, মার্কিন দূতাবাসের প্রতিনিধি জেড এ উলিয়াম ও সারা ফ্রিউলিংক, সামিট গ্রুপের প্রধান নির্বাহী তরিকুল রাশিদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন