ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সরকার সমর্থকদের বিপুল বিজয়

0
62
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটে রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধিদের ২৫টি পদের ১৮টিতে জয় পেয়েছে আওয়ামী-বাম সমর্থিত গণতান্ত্রিক ঐক্য পরিষদ। অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী পরিষদ জয় পেয়েছে সাতটিতে। সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদ নামে একটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও কোনো পদ পায়নি।
গতকাল রোববার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে ভোট গণনা শেষে এই ফলাফল ঘোষণা করেন সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) সহিদ আকতার হুসাইন। গত ২০ আগস্ট সিনেটে ৩৫ জন শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনেও ২৭টিতে জয় পায় আওয়ামী-বাম সমর্থিত শিক্ষকদের নীল দল। ফলে সিনেটের ৬০ নির্বাচিত প্রতিনিধি পদের মধ্যে ৪৫টি পেল সরকার-সমর্থক ওই প্যানেল।
ঐক্য পরিষদের নির্বাচিত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অসীম সরকার, এ কে এম গোলাম রব্বানী, মো. আজিজুর রহমান, এস এম ইমামুল হক ও মুহাম্মদ আবদুস সামাদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের এম ইকবাল আর্সলান ও মো. শারফুদ্দিন আহমদ, সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম ফরিদ উদ্দিন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য মাহফুজা খানম, কলেজ শিক্ষক নেতা এম এ বারী, এ এইচ এম এনামুল হক চৌধুরী, এ বি এম বদরুদ্দোজা, এস এম বাহালুল মজনুন, নার্গিস জাহান বানু ও মোহাম্মাদ শামছুল হক ভূঁইয়া।
জাতীয়তাবাদী পরিষদের নির্বাচিত ব্যক্তিরা হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহ-উপাচার্য আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক উম্মে কুলসুম রওজাতুর রোম্মান ও মো. মোর্শেদ হাসান খান, বিএনপির মানবাধিকারবিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমেদ অসীম, সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহ, মো. আবদুল হালিম পাটওয়ারী ও আবদুল আজিজ।
গত শনিবার ঢাকায় ভোট গ্রহণ করা হয়।

শেয়ার করুন