বিএনপির হুমকি নির্বাচনে বাড়তি সুবিধার জন্যে: হানিফ

0
48
Print Friendly, PDF & Email

প্রধান বিরোধী দল বিএনপির আন্দোলনের হুমকি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, “বিএনপি তলে তলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে আর উপর দিয়ে আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তাদের এই হুমকি নির্বাচনে বাড়তি সুবিধা আদায়ের জন্য।”

রোববার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এ মহানগর আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, “খুলনায় বিএনপির জনসভা কোন রাজনৈতিক আন্দোলনের কর্মসূচি নয়, এটা তাদের নির্বাচনী সভা। তারা আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্যই একেরপর এক জনসভা করে যাচ্ছে।”

তিনি অভিযোগ করে বলেন, “বিএনপি দেশের উন্নয়ন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। বহি:বিশ্ব আমাদের উন্নয়নে প্রশংসা করছে। কাজের স্বীকৃতি দিচ্ছে। আর বিএনপি এগুলো দেখে না। তারা একের পর এক অভিযোগ তুলে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে।”

আওয়ামী লীগের এ নতো বলেন, কিছু বুদ্ধিজীবী দেশে সংকট আছে বলে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। মূলত দেশে কোন সংকট নেই, তারা পরিবেশ ঘোলাটে করে সংকট তৈরি করতে চায়।”

হানিফ বলেন, “জাতীয় সংসদে এসে বিরোধী দল তাদের সকল দাবি-দাওয়া ও প্রস্তাব দিতে পারে, গ্রহণযোগ্য হলে আমরা তা নিয়ে আলোচনা করবো। একটা সমাধানের পথ বের করবো।”

তিনি বলেন, “এ সরকারের আমলেই মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কয়েকজন যুদ্ধাপরাধীর রায় কার্যকর করা হবে। তবে, বিচার সম্পন্ন করতে ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আওয়ামী লীগ কে আবার ক্ষমতায় আসতে হবে।”

এ সময় আইনপ্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, “দেশে কোন সংকট নেই। বিরোধী দল সংকট আছে বলে মনে করলে সংসদে এসে আলোচনা করতে পারে। সংবিধানের মধ্যে সব সমাধান আছে। আন্তরিকতা থাকলে আমরা সকলে মিলে সব সমস্যার সমাধান করতে পারবো।”

নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন এমপি, যুগ্ম সম্পাদক হাজী মো: সেলিম, আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন