ওবামা-রুহানি ফোনালাপ

0
71
Print Friendly, PDF & Email

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা শুক্রবার রাতে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে ফোনে কথা্ বলেছেন। গত ৩০ বছরেরও বেশি সময় পর দু দেশের সর্ব্বোচ্চ নেতারা সরাসরি কথা বললেন।
 
রুহানির সঙ্গে ফোনালাপের পরপরই ওবামা বলেন,‘এইমাত্র আমি ইরানের প্রেসিডেন্ট রুহানির সঙ্গে ফোনে কথা বললাম। আমরা দুজন তেহরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি।’
 
ইরানের সংবাদ মাধ্যম ইরনা জানায়, প্রেসিডেন্ট রুহানি নিউইয়র্ক ত্যাগ করার আগ মুহূর্তে ওবামা তাকে ফোন করেন। জাতিংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে তিনি নিউইয়র্ক সফর করছিলেন।
 
হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা জানান, দীর্ঘ ১৫ মিনিট ধরে দুই নেতা বিভিন্ন ইস্যুতে আন্তরিকতার সঙ্গে আলাপ করেন। এসময় ওবামা ইরানে বন্দি থাকা আমেরিকানদের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তবে তেহরানের পরমাণু সঙ্কট নিয়ে একটি সমঝোতায় পৌঁছানোর বিষয়ে তারা সম্মত হন বলে কর্মকর্তাটি জানান। আলাপ শেষে ওবামা বলেন,‘ পরমানু ইস্যুতে এখনো বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা থাকলেও আমার বিশ্বাস আমরা একটি সমঝোতায় পৌঁছুতে পারবো।’
 
গত জুন মাসের নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর থেকে প্রেসিডেন্ট রুহানি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ণে আগ্রহ প্রকাশ করে আসছেন। আগামী তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে পরমানু কর্মসূচি নিয়ে একটি চুক্তিতে পৌঁছাত চান বলে বলে সম্প্রতি তিনি জানিয়েছেন।
 
উল্লেখ্য, ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামি বিপ্লবের পর থেকে দু দেশের নেতারা কোনো ধরনের আলোচনায় বসেননি। সেদিক দিয়ে দেখলে ওবামা-রুহানি ফোনালাপ একটি দু দেশের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের একটি উল্লেখযোগ্য ইঙ্গিত।

শেয়ার করুন