দেশে অসাংবিধানিক শক্তিকে ক্ষমতায় আসার সুযোগ দেবে না আ.লীগ: সুরঞ্জিত সেন

0
60
Print Friendly, PDF & Email

দেশে কোনো অসাংবিধানিক শক্তিকে ক্ষমতায় আসার সুযোগ আওয়ামী লীগ দেবে না। আর যদি এমন কোনো শক্তি ক্ষমতায় আসে তার দায়ভার বিরোধীদলকেই নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লেবেল প্লেইং ফিল্ডের মাধ্যমেই ক্ষমতা হস্তান্তর করবে। বিরোধী দল সাংবিধানিক ধারা বিনষ্ট করতে উঠে পড়ে লেগেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সংবিধানের সুষ্ঠু ধারা ধরে রাখতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্য ক্ষমতা হস্তান্তর করবে।’

শনিবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটে বঙ্গবন্ধু একাডেমী আয়োজিত ‘আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপি নেত্রীবৃন্দের বিভ্রান্তিকর বক্তব্যের প্রতিবাদ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

দপ্তরবিহীন এ মন্ত্রী বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে দেশে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে তার প্রত্যেকটি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হয়েছে। এখন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা হয়েছে। দেশের মানুষ এই নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে আছে। এ নির্বাচনও অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হবে।’

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘মির্জা ফখরুল তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা বললেও ভেতরে ভেতরে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।’

বিরোধী দলকে উদ্দেশ করে আওয়ামী লীগের এ প্রবীণ নেতা বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রজ্ঞা দিয়ে সংবিধান অনুযায়ী আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সহযোগিতা করুন। কারণ নির্বাচনে কারচুপি হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। রাজনৈতিক ইস্যু তৈরি করে কোনো সাংবিধানিক সঙ্কট সৃষ্টি করা যাবে না।’

সুরঞ্জিত বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী পতাকা ও এসএসএফ নিয়ে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়েছে। বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও পতাকা ও এসএসএফ নিয়ে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড করছেন। তাহলে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের অধীনে নির্বাচনে সমস্যাটা কোথায়।’

বিরোধীদল নির্বাচনকালীন যে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি করছে তা সম্পূর্ণ খোড়া যুক্তি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত বলেন, ‘বিরোধী দল ও সরকারি দলের রাজনৈতিক সদিচ্ছা এবং আন্তরিকতা থাকলে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব। বিরোধী  দলের যদি তৃতীয় বিকল্প কোনো মত থাকে তা সংসদে এসে দিতে পারে। কিন্তু দেশে কোনো সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টি করা যাবে না। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের যে তারিখ ঠিক করা হয়েছে, এর বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ীই হবে।’
বঙ্গবন্ধু একাডেমির সহ-সভাপতি নাজমুর হক নাজিমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তৃতা করেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রোজা, আওলাদ মোর্শেদ আলী, মহাসচিব হুমায়ুন কবির মিরু, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই কালু প্রমুখ।

শেয়ার করুন