সুশীলদের সত্য কথা প্রধানমন্ত্রীর ভালো লাগে না: ফখরুল

0
79
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিরোধী দলে থাকতে প্রধানমন্ত্রী সুশীলদের কথা শুনে ‘খুব নৃত্য’ করেছিলেন। এখন ক্ষমতায় গিয়ে সুশীলদের সত্য কথা প্রধানমন্ত্রীর আর ভালো লাগে না।
আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সমাবেশে মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন। জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) যুবসংগঠন যুব জাগপার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
প্রধানমন্ত্রী সুশীল সমাজের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়ার পরদিন সুশীলদের পক্ষ নিয়ে বক্তব্য দেন মির্জা ফখরুল। সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল বলেছিলেন, যাঁদের শক্তি ও সাহস নেই, তাঁরাই গণতান্ত্রিক নির্বাচনকে ভয় পান। তাঁদের নির্বাচন করার ক্ষমতা ও সাহস নেই। তবে তাঁদের ক্ষমতায় যাওয়ার খায়েশ আছে।প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তাঁরা (সুশীল সমাজ) জনগণের বিবেকের কাজ করেন। সত্য কথা বলেন। ক্ষমতায় থাকলে তাঁদের কথা ভালো লাগে না। (প্রধানমন্ত্রী) যখন বিরোধী দলে ছিলেন, তখন তাদের (সুশীল সমাজ) কথায় খুব নৃত্য করেছেন, আনন্দ করেছেন।’
প্রধানমন্ত্রীর গতকালের বক্তব্যের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, কোটি মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষা পদদলিত করে, গণতন্ত্রকে নিয়ন্ত্রণ করে প্রধানমন্ত্রী ‘শুরু’ করতে চান।

নির্বাচন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী গতকাল বলেছিলেন, ‘নির্বাচিত সরকারের হাতেই ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে। গণতান্ত্রিক এই প্রক্রিয়া কাউকে না কাউকে শুরু করতে হবে, আমরাই তা শুরু করছি।’

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, মানুষের জন্য সংবিধান। সংবিধান কোরআন বা বাইবেল নয় যে পরিবর্তন করা যাবে না। তিনি বলেন, একসময় আওয়ামী লীগ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য আন্দোলন করেছিল। কেন তারা তত্ত্বাবধায়ক সরকার চায়, তা ব্যাখ্যা করে বুকলেট বের করেছিল। এখন তারা ‘উল্টো গীত’ গাইছে। তিনি বলেন, সময় খুব কম। দাবি আদায়ে অল্প সময়ে সব প্রস্তুতি নিয়ে সব কৌশল প্রয়োগ করতে হবে।

সমাবেশে জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, যুব জাগপার সভাপতি ইনসান আলী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

শেয়ার করুন