নৌকায় ভোট দিলে উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

0
86
Print Friendly, PDF & Email

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আগামী নির্বাচনে আপনারা নৌকায় যদি ভোট দেন- তাহলে যেসব উন্নয়ন কাজ আমরা শেষ করতে পারিনি, সেগুলো শেষ করতে পারবো। আর ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে পারবো, যে স্বপ্ন জাতির পিতা দেখেছিলেন।

আজ মঙ্গলবার কক্সবাজারের উখিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

সামপ্রদায়িক সন্ত্রাসে ক্ষতিগ্রস্ত রামুর পুনর্র্নির্মিত বৌদ্ধ বিহারগুলো উদ্বোধনের পর উখিয়া হাই স্কুল মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় তিনি বলেন, বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ার একটি শান্তিপূর্ণ দেশ হিসাবে গড়ে তোলার জন্যই তার দলের রাজনীতি।

উখিয়ার জনসভায় নিজের সরকারের নেয়া বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিবরণ তুলে ধরার পাশাপাশি বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সমালোচনাও করেন প্রধানমন্ত্রী।

বিরোধীদলের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন,‘তিনি নিজে এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে উর্দু ও অংকে পাশ করেছিলেন। নিজে পাশ করতে পারেন নি বলে তিনি আমাদের মেয়েদের পড়ালেখা বন্ধ করতে চাইছেন।’

তিনি বলেন,‘কিন্তু এ কারণে আমাদের মেয়েদের পড়ালেখা বন্ধ হবে কেন?’ 

ইসলামে নারীকে মর্যাদা দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,‘নবী করীম (স:) এর কাছে প্রথম ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন একজন নারী। প্রথম শহীদও একজন নারী। এসব তত্ত্ব দিয়ে আমাদের দেশের নারীদের আটকানো যাবে না।’

অবৈতনিক নারী শিক্ষা জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন,‘নারীদের শিক্ষিত করতে অবৈতনিক শিক্ষা প্রবর্তন করা হয়েছে। বিনামূল্যে বছরের প্রথমে বই দেয়ার পাশাপাশি উপবৃত্তিরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা শিক্ষিত হয়ে দেশ ও মানুষের কল্যাণে এগিয়ে যাবে। বাংলাদেশ বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়াবে।’

উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আদিল উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জনসভায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার, বিসিবি’র সভাপতি ও সাংসদ নাজমুল হাসান পাপন, স্থানীয় সাংসদ আবদুর রহমান বদি, যুবলীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আহমদ হোসেন, কক্সবাজারের জেলা পরিষদ প্রশাসক মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী, সাংসদ এথিন রাখাইন, সাংসদ চেমন আরা তৈয়ব, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ,  জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমেদ সিআইপি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য আমিনুল ইসলাম আমিন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন এবং বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম বক্তব্য দেন।

শেয়ার করুন