‘পদ্ধতি নিয়ে নৈরাজ্য না করে প্রস্তুতি নিন’

0
57
Print Friendly, PDF & Email

বিরোধী দলকে নির্বাচনকালীন সরকার পদ্ধতি নিয়ে ‘আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য’ সৃষ্টি না করে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম।’পদ্ধতি নিয়ে নৈরাজ্য না করে প্রস্তুতি নিন
মঙ্গলবার নওগাঁয় জেলা আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় তিনি এই আহ্বান জানান।
 
বিরোধী দলের উদ্দেশ মোহম্মদ নাসিম বলেন, “পদ্ধতি নিয়ে আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টি না করে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন।”
 
তিনি বলেন, “এখন আর পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করে লাভ নেই। নির্বাচন এখন সময়ের অপেক্ষা। দেশবাসী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হয়ে গেছে। স্বাধীন নির্বাচন কমিশনই নির্বাচন পরিচালনা করবে। আর নির্বাচনকালীন সময় সর্ব ক্ষেত্রে প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের হুকুমেই চলবে।”
 
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, “নির্বাচনে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার, সিভিল প্রশাসন, বে-সামরিক প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহীনি কোনোক্ষেত্রেই হস্তক্ষেপ করবে না।”
 
সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী অনুযায়ী বর্তমান সরকারের শেষ ৯০ দিনে ‘অন্তর্বর্তী সরকারের’ অধীনে দশম সংসদ নির্বাচন হওয়ার কথা। ২০১১ সালে উচ্চ আদালত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করার পর সংবিধানে এই সংশোধনী আনা হয়।
 
তবে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ‘নির্দলীয় সরকারের’ অধীনে আগামী নির্বাচন আয়োজনের দাবি জানিয়ে আসছে। ‘নির্দলীয় সরকার’ ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার পাশাপাশি নির্বাচন হতে না দেওয়ার কথা বিএনপির পক্ষ থেকে একাধিকবার বলা হয়েছে।
 
প্রধানমন্ত্রী সোমবার সচিবালয়ে সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে বলেছেন, সংবিধান অনুযায়ী সংসদের মেয়াদ ২০১৪ সালের ২৪ জানুয়ারি শেষ হবে। এই মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই ৯০ দিনের মধ্যে যেকোনো দিন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই সময়ে সংসদ থাকবে, তবে কোনো অধিবেশন বসবে না এবং সরকার কোনো নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে না।
 
এদিকে সংসদ বহাল রেখে আরেকটি সংসদ নির্বাচনের প্রস্তাবকে ‘ষড়যন্ত্র’ বলে দাবি করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
 
মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “এটা দেশের জনগণ মানবে না। আমরাও মানি না।”
 
নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম ফজলে রাব্বীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক এমপি, ইসরাফিল আলম এমপি, সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি, ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী এমপি, শহিদুজ্জামান সরকার বাবলু এমপি, শাহিন মোনায়ারা হক এমপি প্রমুখ।

শেয়ার করুন