সংসদ অধিবেশনের আগেই সংলাপের সম্ভাবনা

0
73
Print Friendly, PDF & Email

নবম জাতীয় সংসদের শেষ অধিবেশনের আগেই নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা নিয়ে  সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে বলে আভাস পাওয়া গেছে।  এ ব্যাপারে  সরকারি দল ও বিরোধী দলের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে অনানুষ্ঠানিক যোগাযোগ ও কথাবার্তাও চলছে। পাশাপাশি চলছে ঢাকাস্থ বিদেশি রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক পর্যায়েও ব্যাপক তৎপরতা। নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সরকার ও বিরোধী দলের জটিলতা নিরসনে জাতিসংঘের মহাসচিবের একজন বিশেষ দূতও চলতি মাসেই ঢাকায় আসছেন।
নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা নিয়ে সরকারি দল ও বিরোধী দলের মধ্যে বৈঠকের সম্ভাবনা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ গতকাল ‘ভোরের ডাকে’র প্রতিনিধিকে জানান, নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা নিয়ে বিরোধী দলের মতামত শোনার জন্য ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সংসদ অধিবেশনের আগেই তাদের সঙ্গে সংলাপ ও বৈঠকের কোনো বিকল্প নেই। কারণ, এর পরই শুরু হতে যাচ্ছে  সংসদের শেষ অধিবেশন। তাই সরকার ও বিরোধী দলের মতামতের আলোকে সংসদের এ অধিবেশনেই নির্বাচনকালীন সরকারের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। তিনি বলেন, সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে যদি আলাপ-আলোচনা হতে হয়-তা অবশ্যই ১২ সেপ্টেম্বরের আগেই হতে হবে এবং সে লক্ষ্যে দু’ পক্ষকেই এগিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনের টেলিফোনের সময়ও সেখানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের এই প্রেসিডিয়াম সদস্য। কাজী জাফর উল্লাহ   সংবিধান অনুযায়ী আগামীতে সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যাপারে দৃঢ় আশাবাদ প্রকাশ করে বলেন, জাতিসংঘের মহাসচিবের টেলিফোন বার্তাও  ছিল সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের নিশ্চয়তা বিধান।
১২ সেপ্টেম্বরের আগেই যাতে সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে সংলাপ অনুষ্ঠিত হয় সে লক্ষ্যে কথা চালাচালি সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে  বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য গতকাল ভোরের ডাককে বলেন, নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনের পাশাপাশি আলাপ-আলোচনা ও সংলাপের পথও খোলা আছে। তারা বলেন, আলাপ-আলোচনা ও সংলাপের পথ বিএনপি কখনই রূদ্ধ করেনি।
সংসদের শেষ  অধিবেশনে বিরোধী দলের যোগদানের ব্যাপারে বিএনপির শীর্ষ নেতারা বলেন, বিএনপির পার্লামেন্টারি পার্টির বৈঠকে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সংসদ  অধিবেশনের আগেই সরকারি দল ও বিরোধী দলের সংলাপের সম্ভাবনা সম্পর্কে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ গতকাল ভোরের ডাককে বলেন, সরকার সব সময়ই সংলাপ এবং আলাপ-আলোচনায় বসতে আগ্রহী। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সংসদ অধিবেশনের আগেই সরকারি দল ও বিরোধী দলের মধ্যে সংলাপ কিংবা আলাপ-আলোচনা হলে নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখার ব্যাপারে বিরোধী দলের মতামত জানা যাবে, যা নিয়ে সংসদ অধিবেশনেও আলোচনার মাধ্যমে নির্বাচিত অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ সম্ভব হবে বলে আমি মনে করি।

শেয়ার করুন