বিশেষ সিনেট অধিবেশন আহ্বানের সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ

0
46
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন সদস্যের উপাচার্য প্যানেল মনোনীত করতে বিশেষ সিনেট অধিবেশন আহ্বানের সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট হয়েছে। ২৪ আগস্ট ওই সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহ-উপাচার্য ও জাতীয়তাবাদী পরিষদের প্রার্থী আ ফ ম ইউসুফ হায়দারসহ তিনজন রিটটি করেন।

রিট আবেদনকারীদের আইনজীবী এম বেলায়েত হোসেন প্রথম আলো ডটকমকে বলেন, এ বিষয়ে একটি রিট আবেদন করা হয়েছে। অবকাশ চলছে। তাই বেঞ্চ দেওয়ার জন্য প্রধান বিচারপতির কাছে বিষয়টি উপস্থাপন করা হবে। রিট আবেদনে ওই সভা করা থেকে বিরত থাকতে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

২৪ আগস্ট ‘বিশেষ সিনেট অধিবেশন’ করার সিদ্ধান্ত ৫ আগস্ট সিনেট অধিবেশনে নেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিটটি হয়েছে। ওই সিদ্ধান্তে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩-এর অনুচ্ছেদ ২১ (২)-এর ক্ষমতা বলে উপাচার্য ২৪ আগস্ট শনিবার বেলা সাড়ে তিনটায় নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে সিনেটের বিশেষ সভা আহ্বান করেছেন। এতে বলা হয়, বিশেষ সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩-এর অনুচ্ছেদ ১১ (১) অনুযায়ী উপাচার্য কর্তৃক উপাচার্য নিয়োগের জন্য একটি প্যানেল মনোনয়ন করা হবে।

রিট আবেদনকারীদের যুক্তি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩-এর ২০ অনুচ্ছেদ অনুসারে সিনেট সদস্যসংখ্যা ১০৫ জন। এখন সেখানে ৫৫টি পদ খালি। সিনেট বলতে ১০৫ সদস্যকেই বোঝায়। এ কারণে ওই সভা হবে আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত। সিনেটের রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট থেকে ২৫ জন প্রতিনিধি চূড়ান্ত হবে সেপ্টেম্বরে। গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনের আগে এই সভা আহ্বান অসত্ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

রিট আবেদনে ৫ আগস্টের ওই সিদ্ধান্ত কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না—এই মর্মে রুল চাওয়া হয়েছে। আবেদনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

শেয়ার করুন