ঈদুল আজহার পর চূড়ান্ত আন্দোলন

0
60
Print Friendly, PDF & Email

আপাতত কঠোর কর্মসূচি দিচ্ছে না বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবিতে আগামী ঈদুল আজহার পর লাগাতার কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দেবে তারা।ঈদুল আজহার পর চূড়ান্ত আন্দোলন
১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে খালেদা জিয়ার বৈঠক। ছবি-সমকাল

ঈদের পর চট্টগ্রামে সমাবেশের পর ঢাকায় মহাসমাবেশের মাধ্যমে সরকারকে দাবি পূরণে ‘চূড়ান্ত আলটিমেটাম’ বা লাগাতার অবস্থানের কর্মসূচি দিতে পারে তারা। এর আগে দাবির পক্ষে ‘জনমত’ গড়ে তুলতে সারাদেশে গণসংযোগভিত্তিক কর্মসূচি দেওয়া হবে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বিভাগীয় শহরে সমাবেশ এবং কেন্দ্রীয় নেতারা জেলায় সভা-সমাবেশ ও গণসংযোগ করবেন। এছাড়া দাবি আদায়ে কেন্দ্রীয়ভাবেও বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, মানববন্ধন ও গণসংযোগের মতো কর্মসূচিও দেওয়া হতে পারে। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর নবম সংসদের শেষ অধিবেশনের আগে সংবাদ সম্মেলন করে নির্দলীয় সরকারের বিল এনে পাস করার আহ্বান জানাতে পারেন বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া। একইসঙ্গে ঈদের আগে সরকারকে দাবি পূরণের আলটিমেটামও দিতে পারেন তিনি।

রোববার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে এ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। অবশ্য নতুন এসব কর্মসূচিতে সংযোজন ও বিয়োজনের ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ওপর দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। দায়িত্ব পাওয়ার পর খালেদা জিয়া ১৮ দলীয় জোটের বৈঠক শেষে কর্মসূচির চূড়ান্ত দিনক্ষণ নির্ধারণ করতে গতরাতে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বৈঠক করেন। আজ দুপুর ১২টায় নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

রাত সোয়া ৯টা থেকে পৌনে ১১টা পর্যন্ত এ বৈঠক চলে। জোট নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের আগে আন্দোলনের কর্মকৌশল ও সম্ভাব্য কর্মসূচি নিয়ে শনিবার দলের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে আলোচনা করেন বিরোধীদলীয় নেতা।

বৈঠকে অংশ নেওয়া শরিক দলগুলোর কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কঠোর কর্মসূচির পরিবর্তে আপাতত গণসংযোগের মতো কর্মসূচি নিয়ে এগোনোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাতে সরকার বাধা দিলে কঠোর আন্দোলনে যাবে বিরোধী দল। অবশ্য জামায়াতের পক্ষ থেকে হরতালের কর্মসূচি দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হলেও তা আমলে নেওয়া হয়নি।

বিএনপির দাবি মেনে সংবিধান সংশোধন হবে না বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পূর্বনির্ধারিত এ বৈঠকে বসেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

শেয়ার করুন