আন্দোলনের এখনই সময় : ফখরুল

0
42
Print Friendly, PDF & Email

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া এ দেশে কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না। নির্দলীয় সরকার দাবি আদায়ে শহীদ জিয়ার জ§ভূমি বগুড়া থেকেই আন্দোলন জোরদার করতে হবে। ভোট ও গণতন্ত্রের অধিকার আদায়ে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আন্দোলনের এখনই সময়।
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ৬৯তম জ§দিন উপলক্ষে সাত দিনব্যাপী কর্মসূচির প্রথম দিন গতকাল বিকালে শহরের শহীদ টিটু মিলনায়তনে কেক কাটা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় কেক কাটা ছাড়াও হতদরিদ্রদের মধ্যে হাঁস, মুরগি, ছাগল ও বস্ত্র বিতরণ করা হয়।
বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, আবদুল মোমিন তালুকদার খোকা এমপি, অ্যাডভোকেট হাফিজুর রহমান এমপি, মোস্তফা আলী মুকুল এমপি, সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদিন চান, যুবদলের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ফরহাদ হোসেন আজাদ, স্থানীয় বিএনপি নেতা মো. শোক রানা, মাফতুন আহম্মেদ খান রুবেল, শেখ তাহা উদ্দিন নাইন, মাহফুজুর রহমান রাজু, মাহমুদ শরীফ মিঠু, সিপার আল বখতিয়ার, মেহেদী হাসান হিমু, নাজমা খাতুন প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল বলেন, গুম, খুন, মামলা হামলা আর যতই সেনাপতি আমদানি করা হোক কোনো লাভ হবে না। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে অর্থনীতি ধ্বংস করেছে। দুর্নীতি করে পদ্মা সেতুর কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শেয়ারবাজার থেকে কোটি কোটি টাকা সরকারের লোকজন হাতিয়ে নিয়েছে। দেশের শতকরা ৯০টি রাজনৈতিক দল বলছে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। শেখ হাসিনার সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না। ৫টি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জনগণ সরকারকে যে রায় দিয়েছে সেই রায় হলো, কোনো দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নয়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করলে বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা মামলা দিত না। অধিকার সম্পাদক আদিলুর রহমান খানকে গ্রেফতার করত না। আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিক সরকার দাবি করলেও তারা গণতন্ত্র বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ সরকারের সাড়ে চার বছরের দুঃশাসনে গণতন্ত্র ধ্বংস হয়েছে। আমরা আওয়ামী লীগের পতন ঘটিয়ে বাড়ি ফিরব।

শেয়ার করুন