নির্বাচন কারো নসিহতে নয়, সংবিধানুযায়ী: নাসিম

0
60
Print Friendly, PDF & Email

“সংবিধান অনুযায়ী সঠিক সময়েই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। আমরা কারো নসিহতে নির্বাচন করব না।”

সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীতে তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি বিলুপ্ত হওয়ায় এখন নির্বাচিত সরকারের অধীনে পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন হবে।

সংবিধান অনুসরণ করে আওয়ামী লীগ নেতারা বিরোধী দলকে নির্বাচনে আসতে আহ্বান জানালেও বিএনপি বলছে, দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে না। 

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নাসিম বলেন, গত পাঁচ বছরে সবগুলো নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আওয়ামী লীগের সময়ে কোনো নির্বাচনী এলাকায় মাগুরার মতো ঘটনা ঘটেনি।

মোহাম্মদ নাসিম, ফাইল ছবি

মোহাম্মদ নাসিম, ফাইল ছবি
“তাই আসন্ন নির্বাচনে স্বতস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করতে পারেন,” বিরোধী দলের উদ্দেশে বলেন তিনি।

জাতীয় শোক দিবসে বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে শিশু চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নাসিম এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে জাতীয় জীবনে যে কলঙ্কিত অধ্যায়ের শুরু হয়েছিল শেখহাসিনার ক্লান্তিহীন এবং শ্রান্তিহীন নেতৃত্ব গুণে তা কিছুটা হলেও কলঙ্কমুক্ত হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচারের পর জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ড এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়া শুরুর উদ্যোগ নেয়ার কথাও বলেন তিনি।

নাসিম বলেন, “শেখ হাসিনা যখন এমন সাহসী এবং ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করে চলেছেন, ঠিক সেই মুহূর্তে দেশ জাতীয় নির্বাচনের সম্মুখীন হয়েছে। তাই এখন দেশের মানুষকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে, তারা ঠিক কাদের আবার ক্ষমতায় আনবে।”

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং ইতিহাস-ঐতিহ্যে অন্ধকার নেমে এলেও তার আদর্শের আলো ছড়িয়ে পড়ছে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। তাই বঙ্গবন্ধু মৃত্যুঞ্জয়ী।

ছাত্রলীগ সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আফজাল হোসেন, চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবুল বারাক আলভী, ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদি হাসান, সাধারণ সম্পাদক ওমর শরিফ বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন