নিউজিল্যান্ডে ৬.৫ মাত্রার ভূমিকম্প

0
42
Print Friendly, PDF & Email

৮ কিলোমিটার গভীরে ছিল ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল। তবে এতে তেমন গুরুতর কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে।

ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থলের কাছে হোটেল ডা উরভিল-এর ম্যানেজার ক্রিস বিরকস বলেন, “ভবনগুলো দুলছিল আর তা চলতেই থাকে। এর পরপরই বিপুল সংখ্যক পুলিশ এবং অগ্নিনির্বাপককর্মীদের তৎপরতার সাইরেন শোনা যায়। এটা ছিল সত্যিই ভীতিকর।”

অগ্নিনির্বাপক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান সহজেই নিরূপণ করা যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা প্রথমে এই ভূমিকম্পের মাত্রা নির্ধারণ করেছে ৬ দশমিক ৮। কিন্তু পরবর্তী সময়ে তা ৬ দশমিক ৫ বলে পুনর্নিধারণ করে।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ সংস্থা কম্পনটির মাত্রা ৬ দশমিক ২ বলে নির্ধারণ করেছে।

ভূমিকম্পটির ফলে যদিও শক্তিশালী কয়েক দফা পরাঘাত হয়েছে কিন্তু এরপরও কোনো সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি বলে প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কতা কেন্দ্রের বরাতে জানা গেছে।

ওয়েলিংটনে কিছু মানুষ একটি লিফটে আটকা পড়ে বলে জানা গেছে।

২০১১ সালে দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ক্রাইস্টচার্চে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার এক শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়। এতে প্রায় ২শ’ মানুষের মৃত্যুর পাশাপাশি প্রায় ৩ হাজার কোটি ডলারের ক্ষয়ক্ষতি হয়।

শেয়ার করুন