রাজধানীতে জুলাই মাসে : আ’লীগ-বিএনপি নেতাসহ ২৬ খুন : মামলা দেড় শতাধিক : গ্রেফতার ২৮

0
60
Print Friendly, PDF & Email

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় জুলাই মাসে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিনেতাসহ খুন হয়েছেন ২৬ জন। এসব হত্যাকা-ের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলেও মূল হোতারা ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছেন। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দল, টাকার ভাগবাটোয়ারা ও ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের কারণে ব্যাবসায়ীসহ বিভিন্ন জনকে পরিকল্পতিভাবে হত্যা করছে। ক্ষমতাসীন নেতাদের ছত্রছায়ায় সন্ত্রাসীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে আর এসব হত্যাকা-ের ঘটনা দিনদিন বেড়ে চলছে। এই হত্যাকা-ের ঘটনায় সন্ত্রাসীদের দাপটে সবসময় আতঙ্কে থাকে এলাকাবাসী। পুলিশের দাবি, হত্যাকা-ের তদন্ত চলছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ২৮ জন। অন্যদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জানা গেছে, গত ৩ জুলাই রাজধানীর ডেমরা এলাকায় পূর্বশত্রুতার জের ধরে শ্বাসরোধ করে রাকিব হোসেন (১৮) নামে এক যুবককে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এছাড়া এই ঘটনায় নিহতের খালাতো ভাই সাইফুল ইসলামকে (২৬) কুপিয়ে জখম করেছে।

গত ৪ জুলাই, গুলশান এলাকায় তিলক অগাস্টিন পালমা (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তিলক কালাচাঁদপুর হাইস্কুলের বাণিজ্য বিভাগের নবম শ্রেণীর ছাত্র। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে সে বিষয়ে জানাতে পারেনি পুলিশ।

গত ৫ জুলাই, ধানমন্ডিতে কথা কাটাকাটির জের ধরে বন্ধুর হামলায় শামীম শিকদার (১৮) নামে এক ছাত্র নিহত হয়। নিহত শামীম ন্যাশনাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। পুলিশ এ ঘটনায় তার বন্ধু শুভকে গ্রেফতার করলেও মূল আসামিরা বাইরে রয়ে গেছে। গত ১১ জুলাই রোজার প্রথম দিনে রাজধানীর পল্টনের দৈনিক বাংলার মোড়ে একটি নোহা গাড়ি থেকে ফেলে আমির হোসেন কাঞ্চন (৪২) নামে এক ফার্নিচার ব্যাবসায়ীকে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। ধারণা করা হচ্ছে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে তার মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। জানা গেছে, নিহত আমির পল্লবী থানার ছাত্রলীগের সদস্য ছিলেন।

একই দিনে সন্ত্রাসীরা উত্তরা এলাকায় এক ব্যক্তিকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করে। উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ অজ্ঞাত (২৮) ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে। তার মাথায় সেলাইসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের উত্তরা জোনের ডিসি নিশারুল আরিফ সংবাদকে জানান, নিহত ব্যক্তির মাথায় সেলাইয়ের চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রচ- মারপিট করার পর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে মারা গেলে গোপনে রাস্তায় ফেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। পুলিশ হত্যাকারীদের চিহ্নিত করার জন্য তদন্তে নেমেছেন।

এই দিন রাতে বাড্ডা এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে সোহাগ ওরফে রুবেল (২২) নামে এক গার্মেন্টকর্মী নিহত হয়। এই ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ঘটনাটি তদন্ত করছেন।

গত ১২ জুলাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে রুবেল (১০) নামের এক শিশুর লাশ ফেলে পালিয়ে গেছে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা। পুলিশ বলছে, ছেলেটির বাম গালে ও দুই হাতে এবং ডান হাতের কাঁধে ব্যান্ডেস করা ছিল। এছাড়া শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, অন্য কোথাও তাকে মারধর করে হত্যা করা হয়েছে।

গত ১৩ জুলাই মিরপুর বেড়িবাঁধ এলাকায় মুরাদ হোসেন (৩০) নামে এক যুবককে জবাই করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই এলাকার স্বপ্নচূড়া নামে একটি ভাসমান রেস্টুরেন্টে এ ঘটনা ঘটে। শাহআলী থানার ওসি সেলিমুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ স্বপ্নচূড়ার একটি কক্ষ থেকে মুরাদের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, সেহরীর পরে যে কোন সময় তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

গত ১৪ জুলাই রাজধানীর মহাখালী এলাকায় হরতালের সমর্থনে বের করা মিছিল শেষে হূদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আবুল আলা ইকবাল (৪২) নামে এক জামায়াত নেতার মৃত্যু হয়েছে। তবে এলাকাবাসী বলছে, মিছিল থেকে আটক করে পুলিশ বক্সে নির্যাতনের মাধ্যমে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

গত ১৫ জুলাই শেরেবাংলা নগরের জাতীয় অর্থপেডিক্স হাসপাতাল (পঙ্গু) থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এদিন সকাল আটটার দিকে অজ্ঞাত পরিচয়ের কয়েকজন যুবক তাকে আহত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায়। তার শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলাফুলা জখম ও থেঁতলানা রয়েছে। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

একই দিনে রাতে জুরাইন এলাকায় সারোয়ার হোসেন বাবু (৩৫) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। পূর্বজুরাইন মেডিকেল রোডের ৪৫৮ নম্বর বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, পূর্বশক্রতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হতে পারে।

গত ১৭ জুলাই রাজধানীর শাহবাগের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ফাতেমা আক্তার (১৮) নামের এক তরুণীর লাশ ফেলে পালিয়েছে তার কথিত স্বজনরা। মৃত ফাতেমার গলায় কালো ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ বলছে, তাকে মেরে হত্যা করা হয়েছে।

একই দিনে রাতে মিরপুরে জহিরুল ইসলাম বাবু (৩৫) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। জানা গেছে, জহিরুল ইসলাম ১৩ নং ওয়ার্ড যু্বলীগের সদস্য ছিলেন।

গত ১৮ জুলাই মিরপুর শাহআলির বোটানিক্যাল গার্ডেনের ভিতর থেকে এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ বলছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

গত ১৯ জুলাই ধানমন্ডিতে সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে মোহন হাওলাদার (২৮) নামের এক চা দোকানদার নিহত হয়। এ ঘটনায় জাহিদুল ইসলাম শুভ নামে এক ক্রেতাও আহত হয়। তবে এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

২০ জুলাই মিরপুরের রূপনগর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মেহেদী আলম মাহাদী (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে রূপনগরের বেড়িবাঁধ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের দাবি, সন্ত্রাসীদের গুলিতে তার মৃত্যু হয়েছে।

একই দিন রাতে বংশালের টেকের হাট এলাকায় শনিবার রাত ১০টার দিকে সিদ্দিক সিকদার (৩৫) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

গত ২১ জুলাই রামপুরা এলাকায় চাঁদা না দেয়ায় সন্ত্রাসীরা গুলি করে উজ্জ্বল (২৫) নামে লেগুনা স্ট্যান্ডের এক লাইনম্যানকে হত্যা করে। ইফতারির পর রামপুরা ব্রিজের পাশে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, উজ্জ্বল মধ্যবাড্ডা মডেল কলেজের ইন্টারমিডিয়েটের ছাত্র। এছাড়া সে ৯৮ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্য।

গত ২২ জুলাই রাজধানীর রায়েরবাজার শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধের পাশের ঝিল থেকে শহীদুল ইসলাম বাপ্পী (২৪) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করে ফেলে রেখে গেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় নিহতের মা শাহিদা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

২২ জুলাই রাতে ভাসানটেক এলাকায় ভগি্নপতির মারধরে হামলায় শামসুন্নাহার (৩৫) নামের এক গৃহবধূ নিহত হয়। ভগি্নপতি খাইরুল তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে শামসুন্নাহারকে মারধর করে হত্যা করে। এই ঘটনায় ভাসানটেক থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়। তবে এই হত্যাকা-ের ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

গত ২৯ জুলাই, উত্তরায় আরেফিন শারমিন সাথী (২০) নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। উত্তরা ১১ নম্বর সেক্টর, ১৪ নম্বর রোডের ৭৭ নম্বর বাসা থেকে সাথীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী আরাফাত রহমান মিরাজ পলাতক রয়েছে।

একই দিনে রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় বিএনপি নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। নিহতের নাম জসিম উদ্দিন (৫৫)। গত সোমবার ইফতারির পর হাজারীবাগ বেড়িবাঁধের ১৩৩/বি নম্বর বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

গত ৩০ জুলাই, পুরান ঢাকার নলগোলায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে মো. আলি ওরফে নওশাদ হোসেন (৩৫) নামে এক ভাঙ্গাড়ি ব্যবসায়ী খুন হয়। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বুড়িগঙ্গা নদীতীরের এ ঘটনা ঘটে। মর্গ সূত্রে জানা গেছে, তার বুকে ৪টি স্থানে গুলির চিহ্ন রয়েছে।

একই দিনে, রাজধানীর পূর্ব জুরাইন এলাকায় নিজ বাসার সামনে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের হামলায় আবু সালেহ শাহীন (২৭) নামে এক যুবক নিহত হয়। গত মঙ্গলবার রাত সোয়া ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

গত ৩০ জুলাই রাতে, গুলশানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান মিল্কিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। গত সোমবার গভীর রাতে গুলশানের ১২৩ নম্বর সড়কের শপার্স ওয়াল্ড মার্কেটের গেটের সামনে এই ঘটনা ঘটে। সিসি ক্যামেরায় এই হত্যার দৃশ্য দেখা গেছে। পাঞ্জাবি পরা সশস্ত্র ক্যাডাররা পূর্ব থেকে মার্কেটের সামনে ওতপেতে থেকে এই হত্যাকা- ঘটিয়েছে।

সর্বশেষ গতকাল ৩১ জুলাই, রাজধানীর মুগদা এলাকায় অজ্ঞাত (৩০) এক মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে পশ্চিম মুগদার ৫৬/সি নম্বর বাড়ির ৫ তলা সিঁড়িতে এই ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

শেয়ার করুন