ভোট চাইলেন জয়

0
96
Print Friendly, PDF & Email

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জন্য ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়।ভোট চাইলেন জয়
 
বুধবার দুপুরে রংপুরের পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় বক্তৃতা করছিলেন তিনি।
 
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে জয় বলেন, “নৌকা মার্কায় ভোট দিলে উন্নয়ন কাজ অব্যাহত থাকবে। কোনোদিনও উন্নয়ন বন্ধ হবে না। আর বিএনপিকে ভোট দিলে উন্নয়ন হবে না। উত্তরবঙ্গে মঙ্গা ফিরে আসবে। মানুষ মারা যাবে।”
 
এর মধ্যে দিয়ে আওয়ামী লীগের কোনো জনসভায় প্রথমবারের মতো বক্তব্য রাখলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালনরত জয়।
 
এসময় তিনি গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে যেসব ওয়াদা দেয়া হয়েছিল সেগুলো বাস্তবায়ন হবে বলে দৃঢ় আশা ব্যক্ত করেন।
 
পীরগঞ্জবাসীর উদ্দেশে জয় বলেন, “আমি আবারও ফিরে আসব।”
 
গত ১৬ জুলাই স্ত্রী ক্রিস্টিন ওভারমায়ার ও একমাত্র মেয়ে সোফিয়াসহ দেশে আসেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়।
 
সেদিন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (গণমাধ্যম) মাহবুবুল হক শাকিল জানিয়েছিলেন, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যক্রমের প্রস্তুতি সমন্বয় করবেন সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্র বসবাসকারী জয়।
 
দেশে ফেরার পর গত ২৩ জুলাই যুবলীগের এক ইফতার অনুষ্ঠানে জয় বলেন, “আমার কাছে তথ্য আছে, সংখ্যা আছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ফেরত আসবে।”
 
তার এই বক্তব্য নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা হয়। প্রতিক্রিয়ায় প্রধান বিরোধীদল বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়, জয়ের বক্তব্য আগামী নির্বাচন নিয়ে ‘কুটিল চক্রান্তের’ ইঙ্গিত বহন করে।
 
প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ হাসিনা গত রোববার ২৮ জুলাই এক অনুষ্ঠানে বক্তব্যে জয়ের দেয়া ‘তথ্য’কে সমর্থন করেন।
 
আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, নির্বাচনী প্রচারের জন্য জয় দেশে এসেছেন। তার বক্তব্যে কোনো ষড়যন্ত্র নেই। তিনি জনমত জরিপের ফল প্রকাশ করেছেন।

শেয়ার করুন