ভারত সফরে দীপুমনির উদ্দেশ্য সফল হয়নি

0
67
Print Friendly, PDF & Email

তিসত্মার পানি বন্টন ও স্থল সীমাননত্ম চুক্তির বিষয়ে ভারতের ৰমতাসীন দল কংগ্রেস ও বিজিপির কাছ থেকে কোন আশ্বাসই পান নি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি৷ বিবিসি বাংলার সাথে স্বাৰাতকারে দিলিস্নর সাংবাদিক গৌতম লাহেরী একথা বলেন৷ তিনি বলেন, কিছু দ্বিপাৰিক আশ্বাস ছাড়া তার সফরের মূল দুই ইসূ্যর ব্যপারে কোন আশ্বাসই তিনি পাননি৷

টিপাই মূখ জল-বিদু্যত্‍ কেন্দ্রের ফলে বাংলাদেশের যেন কোন ৰতি না হয় সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং তাকে আবারো আশ্বসত্ম করেন৷ এছাড়া আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ভারত থেকে পাঁচশত মেগাওয়াট বিদু্যত্‍ সরবরাহের গ্রীড লাইন প্রস্তুত করা এবং একই মাস থেকেই এই বিদু্যত্‍ ব্যবহার করা যাবে বলেও তাকে আশ্বসত্ম করা হয়৷ কিন্তু তার সফরের মূল দুই ইসু্যর কোন সমাধান করতে না পারায় এই সফর ফলাফল শূন্য বলে মনে করছেন অনেকে৷

এ বিষয়ে ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত সি এম শফি সামী বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, তিসত্মার পানি বন্টন ও স্থল সীমানত্ম চুক্তির বিষয়ে আগে থেকেই জোড় প্রচেষ্টা চালালে সফলতা পাওয়া যেত৷ ভারতে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকারের শেষ সময়ে দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব টিকিয়ে রাখতে সরকার কোন মৌলিক পরিবর্তন আনবে বলে মনে করেন না বিশেস্নষকরা৷ এছাড়া স্থল সীমানত্ম চুক্তির বরাবরই বিরোধীতা করেছে বিজিপি৷ সংসদে এ বিষয়ে আইন পাশ করার ৰেত্রে বিজিপি সমর্থন দিবে তাও মনে করছেন বিশেস্নষকরা৷

আর বাংলাদেশ সরকারের শেষ সময়ে এসে কেন এ বিষয়ে এত তোড়জোড় ? বিবিসি বাংলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আনত্মর্জাতিক বিভাগের শিৰক অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পররাষ্ট্র বিষয়ক কয়েকটি বিষয়ে সরকার এমনিতেই সমালোচনার মধ্যে রয়েছে, বিশ্বব্যাংকের পদ্মা সেতু ঋণ বাতিল, জিএসপি সুবিধা স্থগিতসহ কয়েকটি বিষয়ের বিপরিতে সরকার নির্বাচনের আগে সীমানত্ম চুক্তির সফলতা দেখাতেই তোড়জোড় করছে৷ নির্বাচনের আগে তারা যদি এই সফলতা দেখাতে না পারে তাহলে সমালোচনার মুখে পড়বে৷

বিবিসি বলছে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকারের নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা না থাকায় বিজিপির সমর্থন ছাড়া সীমানত্ম চুক্তি আইনে পরিণত করা সম্ভব নয়৷ ডাঃ দিপুমনির এই চুক্তি গুলো বাসত্মবায়নে বিভিন্ন পৰকে রাজি করাতেই মূলত তার এই ভারত সফর৷ এই সফরে ডাঃ দীপুমনি প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংসহ বিজিপি শীর্ষস্থানীয় নেতা অরম্নণ জেটলীর সাথেও বৈঠক করেন৷

শেয়ার করুন