নারী নির্যাতন : আশুলিয়ায় ধর্ষকের জরিমানার টাকা সালিশকারীদের মাঝে ভাগবাটোয়ারা : যশোরে ধর্ষণ চেষ্টার সময় ২ কিশোর আটক

0
188
Print Friendly, PDF & Email

আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকায় আমিন ক্যাডেট একাডেমীর পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে (১১) একই এলাকার আলিম (৩৫) নামের এক লম্পট ধর্ষণ করে এ মাসের প্রথম দিকে। পরে এ ঘটনার বিচার করার নামে ধর্ষকের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করে তা ভাগবাটোয়ারা করে নিয়েছেন গ্রাম্য সালিশকারীরা। এদিকে যশোরে এক কিশোরীকে (১২) ধর্ষণের চেষ্টা করার সময় দুই কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :
আশুলিয়ায় ধর্ষকের জরিমানার টাকা সালিশকারীদের মাঝে ভাগবাটোয়ারা : আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকায় আমিন ক্যাডেট একাডেমীর পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে (১১) একই এলাকার আলিম (৩৫) ধর্ষণ করে এ মাসের প্রথম দিকে। পরে এ ঘটনা বিচার করার নামে ধর্ষকের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করে তা ভাগবাটোয়ারা করে নিয়েছে গ্রাম্য সালিশকারীরা। এ ঘটনায় এলাকাবাসী ও বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ধর্ষিতার মা জানান, তার মেয়ে গত ৬ জুলাই বিকাল ৪টায় ছুটির পরে একা স্কুলসংলগ্ন বাসায় ফেরার পথে আলিম মুখ চেপে ধরে তার বাসার ভেতরে নিয়ে কাপড় দিয়ে হাত ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে ধারালো ছুরি গলায় ধরে এ ঘটনা কাউকে না বলার হুমকি দেয়। মেয়েটিকে ছেড়ে দিলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হতে থাকলে তাকে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে চিকিত্সা দেয়া হয়। এ ব্যাপারে লম্পট আলিমের লোকজন মেয়েটির মা তাছলিমাকে থানায় মামলা করতে না দিয়ে ওই দিন রাত ১০টায় এলাকায় সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। কয়েকদিন পরে জানা যায়, সালিশ রহিম সুবেদার (অব.), কাশেম সুবেদার (অব.) ও এনামসহ কয়েকজন মাতুব্বর জরিমানা ও ক্ষতিপূরণ বাবদ আলিমের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করে নিজেরা ভাগবাটোয়ারা করে নেয় এবং ধর্ষিতার মা তাছলিমাকে গালাগাল করে লাঞ্ছিত করে। এ ব্যাপারে শুক্রবার রাতে আশুলিয়া থানায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ধর্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
যশোরে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ২ কিশোর আটক : এক কিশোরীকে (১২) ধর্ষণের চেষ্টা করার সময় দুই কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে যশোর শহরের পুরনো কসবা থেকে এলাকাবাসী তাদের ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। আটকরা হলেন শহরের পুরনো কসবা রায়পাড়া এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে শিমুল (১৭) এবং বাবুর ছেলে সুজন (১৬)। যশোর কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শারমীন জানান, শনিবার দুপুরে শিমুল ও সুজন তাদের প্রতিবেশী এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই কিশোরীর চিত্কারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাদের আটক করে পুলিশে দেয়।
এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা কোতোয়ালি থানায় একটা ধর্ষণ চেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন বলে এসআই জানান।
পূর্বধলায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীর ওপর নির্যাতন : নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় যৌতুকের জন্য স্বামীর অমানুষিক নির্যাতন সইতে না পেরে স্বামীর ওপর মামলা দায়ের করায় স্বামীর হামলার শিকার হয়েছেন গৃহবধূ রিপা আক্তার (২৭) ও তার বৃদ্ধ বাবা সবির উদ্দিন। গুরুতর আহত অবস্থায় রিপাকে ও তার বাবাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে আনলে সেখানেও তাদের ওপর হামলা চালানো হয়, এমন অভিযোগ রিপার পরিবারের।
গতকাল পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, স্বামী ও দেবরের অমানুষিক নির্যাতনে রিপা, শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন নিয়ে বিছানায় কাতরাচ্ছেন।
উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের বেড়াইল গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩৫) দুই বছর আগে প্রেম করে বিয়ে করেন একই গ্রামের সবির উদ্দিন মেম্বারের মেয়ে রিপা আক্তারকে।
রিপা জানান, বিয়ের পর তার স্বামীকে যৌতুক হিসেবে প্রায় তিন লাখ টাকা দেয়া হয়। এর পর থেকে যৌতুকলোভী স্বামী আরও টাকার জন্য তাকে চাপ দিতে থাকে। তার শাশুড়ি ও দেবরও নানা অজুহাতে তাকে মানসিক নির্যাতন করত। নির্যাতনের বিষয়টি নিয়ে গ্রামের লোকজন বেশ কয়েকবার গ্রাম্য সালিশও করে। তবুও ক্ষান্ত হয়নি যৌতুকলোভী স্বামী, শাশুড়ি ও দেবর। একপর্যায়ে বাবার বাড়িতে এসে গত ২২ জুলাই তার স্বামীর বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।
এতে তার স্বামী ও দেবর ক্ষিপ্ত হয়ে পরদিন ২৩ জুলাই সকালে তাদের বাড়িতে এসে তাকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

শেয়ার করুন