নির্বাচনকালীন সময়ের সরকার নির্দলীয় হতে হবে: মির্জা ফখরুল

0
98
Print Friendly, PDF & Email

নির্বাচনকালীন সরকারের দাবি আদায়ের জন্য সবাইকে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, ‘নির্বাচনকালীন সময়ের সরকার নির্দলীয় হতে হবে।’

শুক্রবার জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজার এলডি হলে বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) আয়োজিত চিকিৎসক সমাবেশ ও ইফতার মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সরকার আমাদের বুকের ওপরে চেপে বসেছে। অর্থনীতি ধ্বংস করছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব বিপন্ন করে তুলছে। তাই ইস্পাত ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। জনগণের সরকার গঠন করতে হবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, ‘তত্ত্ববাধায়ক সরকারের বিপক্ষে প্রধানমন্ত্রী দুটি যুক্তি দেখাচ্ছেন। এ যুক্তির কোনো নৈতিক এবং আইনগত ভিত্তি নেই।’

মওদুদ আহমদ বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকা-লন্ডনের তুলনা করলে হবে না। প্রধানমন্ত্রীকে পরাজয় বরণ করতে হবে। তার কোনো যুক্তিই টিকবে না।’

তিনি বলেন, ‘এই সরকারের আমলে কোনো স্থানীয় নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি। উপজেলা নির্বাচন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্র দখলের মহোৎসব ছিল। তৎকালীন প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন সরকারি দলের কারণে নির্বাচন অবাধ হয়নি।’

নবনির্বাচিত সিটি করপোরেশনের মেয়রদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তার কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়। এই সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।’

ড্যাব বাংলাদেশের সবচেয়ে শক্তিশালী পেশাজীবী সংগঠন উল্লেখ করে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হতে আর বেশি নেই। আপনাদের অনেকের প্রমোশন হয়নি। ওএসডি করে রাখা হয়েছে। এগুলোর সব কিছুর সুবিচার করা হবে। যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রত্যোকের দিকে আমরা তাকাবো।’

ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. একেএম আজিজুল হকের সভাপতিত্বে চিকিৎসক সমাবেশ ও ইফতার মাহফিলে অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমেদ, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অধ্যাপক এমএ মাজেদ, ড্যাব নেতা আব্দুস সালাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রো-ভিসি অধ্যাপক আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক মোস্তাহিদুর রহমান, পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিন্নাতুন নেসা তাহমিনা বেগম,  বিশিষ্ট কলামিস্ট মাহাফুজ উল্ল্যাহ, শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, প্রকৌশলী আ ন হ আখতার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ইফতার মাহফিলে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে মহান আল্লাহর নিকট প্রার্থনা করা হয়। ইফতার মাহফিল পরিচালনা করেন ড্যাব মহাসচিব ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন।

শেয়ার করুন