দলের জরুরি সভা বিকালে, প্রধানমন্ত্রীর পাঁচটি বিশেষ নির্দেশনা

0
73
Print Friendly, PDF & Email

আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের জরুরি সভায় বসছে বিকালে। গণভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে দলীয় সংসদ সদস্যদের পাঁচটি নিদের্শনা দেবেন দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের কয়েকজন সিনিয়র নেতা ও দুইজন মন্ত্রীর সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য পাওয়া গেছে।
 
নাম প্রকাশ না করার শর্তে দলের নীতিনির্ধারণী শীর্ষ নেতারা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানিয়েছেন, জাতীয় নির্বাচনের আর বেশি দিন বাকী নেই। যে সময়টুকু আছে, তার সদ্য ব্যবহার করতে চান দলীয় সভানেত্রী। নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে আজ অনুষ্ঠিত বৈঠকে দলীয় সংসদ সদস্যদের বিশেষ নিদের্শনা দেয়া হবে। নিদের্শনার মধ্যে বিশেষ পাঁচটি নিদের্শনা গুরুত্ব দেয়া হবে। সেগুলো হলে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে দূরত্ব নিরসন, দলকে ঐক্যবদ্ধ করা। সরকারের সাড়ে চার বছরের সাফল্যগুলো জনগণের মাঝে প্রচার, আগামী জাতীয় নিবাচনের জন্য প্রস্তুতি নেয়া।
 
দলীয় সুত্রমতে, পাঁচ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে টানা পরাজয়ের পর কেন্দ্র থেকে শুরু করে তৃণমূলের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে। কোনো কোনো জায়গায় দলের মধ্যে সুপ্ত বিরোধিতার প্রকাশ্যে চলে এসেছে। সম্প্রতি নির্বাচনে পরাজয়ের জন্য উপদষ্টো, মন্ত্রী, সংসদ সদস্যদের দোষারোপ করেছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।
 
সূত্রে জানা গেছে, আজকের সংসদীয় দলের জরম্নরি সভায় সরকারের উপদষ্টো, মন্ত্রী, সংসদ সদস্যসহ বিতর্কিতদের নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তাদের বিরম্নদ্ধে নেতাকর্মীদের অভিযোগের ব্যাপারে জবাবদিহি চাইতে পারেন দলের সভানেত্রী।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় একজন  নেতা জানান, সম্প্রতি পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পরাজয়ের পেছনে দলের মধ্যে বিরোধিতা অনেকাংশে দায়ী। এছাড়া বিরোধীদলের অপপ্রচারের সঠিক জবাবও দিতে পারেনি আওয়ামী লীগ। দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা দলের সভানেত্রীর কাছে বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ও সাংসদদের কর্মকা- নিয়ে অভিযোগ করেছেন। এছাড়াও দলীয় ভাবে ও পৃথকভাবে পরিচালিত তিনটি জরিপ দলীয় সভানেত্রীর হাতে রয়েছে। এ জরিপ নিয়েও আলোচনা করবেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।
 
বিকাল পাঁচটায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনের ব্যাংকুইট হলে জরুরি এ সভা হবে। এটি আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের ২২তম জরুরি সভা।

শেয়ার করুন