প্রত্যাশা ছিল মৃত্যুদণ্ড: জেয়াদ আল-মালুম

0
117
Print Friendly, PDF & Email

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির গোলাম আযমকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে বলে প্রত্যাশা করেছিল রাষ্ট্রপক্ষ। গোলাম আযমকে দেওয়া ৯০ বছরের কারাদণ্ডের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি জেয়াদ আল-মালুম এ কথা বলেন।
জেয়াদ আল-মালুম বলেন, ‘জাতির দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ১৯৭১ সালে মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত এবং হত্যা, নির্যাতনসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে জড়িত গোলাম আযমের রায় দেওয়া হয়েছে। মোট পাঁচটি ক্যাটাগরিতে ৬১টি অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে পর্যায়ক্রমে সর্বসাকল্যে ৯০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। রায়ে আদালত বলেন, তাঁকে ক্যাপিটাল পানিশমেন্ট দেওয়া উচিত। কিন্তু তাঁর বয়স ও অসুস্থতা বিবেচনায় তাঁকে এই সাজা দেওয়া হয়। এতে পর্যায়ক্রমে তিনি আমৃত্যু কারাগারে থাকবেন।’
‘গোলাম আযমের মৃত্যুদণ্ড প্রত্যাশিত ছিল’ বলেও মন্তব্য করেন জেয়াদ আল-মালুম।
রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলিদের সমন্বয়ক এম কে রহমান বলেন, পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি হাতে পাওয়ার পর আপিল করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে রাষ্ট্রপক্ষ।

শেয়ার করুন