প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সত্য নয়: নজরুল

0
110
Print Friendly, PDF & Email

পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী মেয়রদের সম্পর্কে দেয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যকে অসত্য দাবি করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সত্য নয়। কারণ তিনি যাদের দুর্নীতিবাজ বলেছেন তারাই সৎ ও জনগণের পাশে থাকে।

রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘সংলাপ না সংঘাত, নির্বাচন না তৃতীয় শক্তি, কোন পথে রাজনীতি’ শীর্ষক অল কমিউনিটি ফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘পাঁচ সিটিতে হারের কারণ খুঁজে জবাব পাবেন না, কারণ প্রশ্ন সঠিক নয়। অন্যকে দোষারোপ না করে নিজেকে প্রশ্ন করুন, উত্তর পাবেন। সরকারের দুর্নীতি, সন্ত্রাস, অপশাসন ও  জনগণকে দেয়া প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে না পারায় আপনাদের প্রার্থী পরাজিত হয়েছেন।’

দেশের মানুষকে সম্ভাব্য দুর্যোগ ও অনিশ্চয়তার হাত থেকে বাঁচাতে দ্রুত সংলাপে বসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য।

‘সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সৎ প্রার্থী জয়ী হতে পারেনি, দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসীরা বিজয়ী হয়েছেন’  প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘সরকারের মাথা বেশি গরম তাই শুধু সিটি করপোরেশন নির্বাচন নয়, এর আগেও বিভিন্ন স্থানীয় নির্বাচনে জনগণ যে রায় দিয়েছে সরকার তা আমলে নেয়নি।’

সরকারের উদ্দেশে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘গণতন্ত্রের বিপক্ষে অনেক কাজ করেছেন, দয়া করে এবার গণতন্ত্রের পথে আসুন। দেশের ৯০ ভাগ মানুষ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়। সংসদে আপনাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে তাই যেকোনোভাবে এটা পুনর্বহাল করুন।’

নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালের জন্য সরকারের সদিচ্ছাই যথেষ্ট বলে মন্তব্য করেন তিনি।

নজরুল ইসলাম বলেন, ‘জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চাইলে পরিণতি ভালো হবে না। ‘৭৫ এর পর ক্ষমতায় আসতে সময় লেগেছে ২১ বছর। এবার কতো বছর লাগবে তা বলা যায় না। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের জন্য দ্রুত সিদ্ধান্ত নিন।’

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ উদ্দীন বকুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান, বিএনপির অর্থ সম্পাদক আবদুস সালাম, যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য হেলেন জেরীন খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন