জনগণ যে কোনো দুর্গই ভেঙে দিতে পারে : কাদের

0
73
Print Friendly, PDF & Email

যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্ভেদ্য দুর্গ বলতে কোনো কিছু নেই।জনগণ যে কোনো দুর্গই ভেঙে দিতে পারে : কাদের
জনগণ আস্থা হারিয়ে ফেললে যে কোনো দুর্গই ভেঙে দিতে পারে। তিনি বলেন, গাজীপুর নির্বাচনে জনগণ আমাদের ভোট দেয়নি বলে আমরা হেরেছি। আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় দুর্গ হিসেবে পরিচিত গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরাজয় সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের। নির্বাচন-পরবর্তী পরিস্থিতি সম্পর্কে যোগাযোগ মন্ত্রী গতকাল সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আরও বলেন, এ পরাজয় থেকে শিক্ষা নিয়ে দল এবং সরকারের ভুল সংশোধনের সুযোগ প্রসারিত হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, গত ফেব্রুয়ারি থেকে তিনবার রাজনৈতিক দৃশ্যপট পরিবর্তন হয়েছে। আগামী নির্বাচনের এখনো আরও চার মাস বাকি। দৃশ্যপট আবারও পরিবর্তন হতে পারে। আগামী নির্বাচন পর্যন্ত মাতাল হাওয়া বইতে থাকবে। এ হাওয়া কোন দিকে যাবে তা বলা যাবে না। তিনি বলেন, গাজীপুরে ছিল স্থানীয় নির্বাচন। জাতীয় নির্বাচন আলাদা বিষয়। যোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, জনগণ কি কারণে ভোট দেয়নি তার কারণ অনুসন্ধান করে আগামী সময়ে সে ভুল সংশোধন করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা কীভাবে শিক্ষা নেব তা আমাদের ওপর ছেড়ে দিন। আগামী নির্বাচনের আগে জনগণকে ‘খুশি’ করতে যা করা প্রয়োজন তার সবই করা হবে। গাজীপুরে প্রার্থী বাছাইয়ে ভুল ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভুল ছিল কিনা তা পার্টিতে তদন্ত হবে। আমরা ভুল সংশোধন করার প্রক্রিয়ায় আছি। ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণের রায় মাথা পেতে নিয়েছি। জোরজবরদস্তি করে ফলাফল পাল্টানোর চেষ্টা করিনি। তিনি বলেন, ক্ষমতার রাজনীতিতে বার বার পালাবদলের একটা অভিন্ন দৃশ্যপট লক্ষ করা যাচ্ছে। সেটা হচ্ছে, ক্ষমতাসীন দলের প্রতি ক্ষুব্ধ ও বঞ্চিত হয়ে জনগণ বার বার নেগেটিভ ভোট দিচ্ছে। এ ভোটগুলো পজিটিভ করার ব্যাপারে সবাইকে ভাবতে হবে। তিনি বলেন, নেগেটিভ ভোটের প্রবণতা জাতীয় নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে। তার মতে, এক দলের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে অন্য দলকে ভোট দেওয়া গণতন্ত্রের জন্য ভালো নয়।

যোগাযোগমন্ত্রী গাজীপুরের নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের অভিনন্দন জানান।

শেয়ার করুন