অবিলম্বে দুলুকে মুক্তি দিতে হবেঃ- সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুলরোববারের

0
60
Print Friendly, PDF & Email

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী এ্যাড. এম রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে হয়রানী ও মিথ্যা মামলার মুক্তির দাবীতে নয়াপল্টনে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়৷

সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল জানান, দুলুকে শুধু অন্যায়ভাবে রাজনৈতিক কারণে হয়রানি ও নির্যাতন করার উদ্দেশ্যেই মিথ্যা হত্যা মামলায় জড়িয়ে গত ৯ ডিসেম্বর অবরোধ চলাকলে নাটোর শহর থেকে গ্রেফতার করে ৭ মাস যাবত্‍ কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে৷ দুলু একজন বলিষ্ঠ সংগঠক এবং জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা তাকে মানসিকভাবে পর্যুদস্ত করার জন্যই এ মামালা দেয়া হয়েছে৷ আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনী দুলু’র ভাতুস্পুত্র যুবদল নেতা গামা ও বড়াইগ্রাম উপজেলা সভাপতি বিএনপি’র সভাপতি সানাউল্লাহ নূর বাবুসহ অসংখ্য হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে৷ এবং গামার হত্যাকারীদের রাষ্ট্রপতি কর্তৃক ৰমা ঘোষনা করা হয়েছে৷

স্ব এলাকায় ব্যাপক জনসমর্থন ও আদম্য শক্তিকে দুর্বল করার জন্যই এ বলিষ্ঠ নেতাকে আটক করা হয়েছে৷ গত ৭ মাসে ২বার হাইকোর্ট থেকে জামিন দেওয়ার পরও তাঁর বিরুদ্দে সরকার আপীল করে জামিন স্থগিত রেখেছে৷

তিনি অভিযোগ দায়ের করে বলেন, জনাব রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এখন গুরম্নতর শারীরিক অসুস্থতায় ভূগছেন৷ উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, কিডনির জটিল সমস্যা ও রক্তে চর্বির তারতম্যসহ নানা জটিল রোগে সে আক্রান্ত৷ তাছাড়া তাঁর স্ত্রীও প্রচন্ড দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভূগছেন৷ তিনি বলেন, অবিলম্বে দুলু’র মুক্তি দিতে হবে, অন্যথায় কিছু হলে তার দায় দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে৷

এছাড়াও উক্ত সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনু, বিএনপি’র নেতা ব্যারিষ্টার আমিনুল হক, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ইকবাল সাহান মাহমুদ, রাজশাহী সিটি’র নব নির্বাচিত মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, ম্যাব মহাসচিব মেয়র শামিম আল রাজিসহ প্রমূখ৷ 

শেয়ার করুন