প্রধানমন্ত্রীসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে আইসিসিতে অভিযোগ

0
52
Print Friendly, PDF & Email

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসিতে) মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ করেছে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অব বাংলাদেশ ও গ্রেটার ওয়াশিংটন ডিসি বাংলাদেশি আমেরিকান।

শনিবার বিবিসি রেডিওর খবরে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়, ওই দুই সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, তথ্যমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, আইন প্রতিমন্ত্রীসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বেলজিয়ামের আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞ আহমেদ জিয়াউদ্দিন জানান, আইসিসি যদি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়, ব্যাপারটা এত গুরুতর যে পৃথিবী এর জন্য উদ্বিগ্ন হতে পারে, তখনই কেবল আনুষ্ঠানিক তদন্তের অনুমতি দিতে পারে। বিষয়টি আমলে নেয়ার আগে আরও অনেকগুলো ধাপ রয়েছে। এটি একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া। তিনি বলেন, আইসিসি কোনো মানবাধিকারের আদালত নয়। এটা আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত। এখানে সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণ দিতে হবে যে আন্তর্জাতিক অপরাধ সংঘটিত হয়েছে।

‘বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে এমন কোন অপরাধ বা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেনি, যা আইসিসির মানদণ্ডে অপরাধ হিসেবে গণ্য হতে পারে’-এমন মন্তব্য করে আহমেদ জিয়াউদ্দিন বলেন, আমি অভিযোগটির বিষয়ে যতটুকু জানতে পেরেছি, এখানে বারবার মানবাধিকারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তা দেখে মনে হচ্ছে, হয় কোথায় ভুল হচ্ছে। হয়তো তাদের কোন রাজনৈতিক লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য আছে।

এদিকে সংগঠন দু’টির পক্ষে মারটিন এফ ম্যাকমহন অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস বৃহস্পতিবার অভিযোগ দায়ের করে। এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানানোর জন্য ওয়াশিংটন ডিসি ন্যাশনাল প্রেসক্লাবে অ্যাটর্নি মারটিন এফ ম্যাকমহন সংবাদ সম্মেলন করেন। তাকে সহযোগিতা করেন ওলিভার টডিল ও মুয়াজ রহমান। সংবাদ সম্মেলনে মারটিন এফ ম্যাকমহন মানবাধিকার লংঘনে সম্পৃক্ততার অভিযোগে আন্তর্জাতিক আদালতে বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ করেন। মামলায় মোট ২৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। তবে সরাসরি মানবাধিকার লঙ্ঘনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে  ‘সুপিরিয়র কমান্ড রেসপনসিবিলিটি’ হিসেবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদসহ ৯জনকে আসামি করা হয়েছে। ‘সুপিরিয়র কমান্ড রেসপনসিবিলিটি’ হিসেবে বাকি আসামিরা হলেন- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, পুলিশের আইজি হাসান মাহমুদ খন্দকার, র‌্যাবের মহাপরিচালক মোকলেসুর রহমান ও বিজিবি’র মহাপরিচালক আজিজ আহমেদ।

শেয়ার করুন