২৩ জুন চাঁদ পৃথিবীর নিকটবর্তী হচ্ছে

0
123
Print Friendly, PDF & Email

২৩ জুন পৃথিবীর খুব কাছাকাছি আসছে চাঁদ। উপবৃত্তাকার কক্ষপথে পৃথিবী থেকে চাঁদের এই নিকটতম অবস্থানকে অনুভূবা পেরিজি বলা হয়। ওই সময় চাঁদ পৃথিবী হতে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৯৯১ কিলোমিটার বা ২ লাখ ২১ হাজার ৮২৪ মাইল দূরত্বে অবস্থান করবে।

পৃথিবী থেকে চাঁদের গড় দূরত্ব ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০২ কিলোমিটার। ২০১৪ সালের আগস্ট মাসের আগে চাঁদ পৃথিবীর এতো কাছে আর আসছে না।

বিজ্ঞান সংগঠন অনুসন্ধিৎসু চক্র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, ২৩ জুন, অনুভূ সময়ের কাছাকাছি সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ প্রায় একটি সরল রেখায় অবস্থান করবে, সেই জন্য তখনই পূর্ণচন্দ্র বা পূর্ণিমা হবে। যেহেতু অনুভূ ও পূর্ণিমা প্রায় একই সময়ে সংঘঠিত হচ্ছে সেহেতু এই চাঁদ গড় দৃশ্যমান চাঁদের চাইতে কিছুটা বড় ও উজ্জ্বল দেখাবে।

ঢাকার সময় রোববার বিকেল ৫টা ৩২ মিনিটে চাঁদ অনুভূ অবস্থানে আসবে, তবে পূর্ণচন্দ্র বা পূর্ণিমার সর্বোচ্চ মূহুর্তটি ঘটবে বিকেল ৫টার দিকে। ২৩ জুন চাঁদ ঢাকার সময় সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে উদিত হবে।

অনুসন্ধিৎসু চক্রের জ্যোতির্বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি শাহজাহান মৃধা বেনু জানান, অনেকেই ২৩ তারিখের চাঁদকে ‘সুপারমুন’ হিসেবে আখ্যায়িত করলেও গবেষকরা সাধারণত ‘সুপারমুন’ শব্দটি ব্যবহার করেন না। তাঁরা এটাকে বলেন অনুভূ পূর্ণচন্দ্র বা পেরিজি ফুলমুন।

প্রতি বছরই কোন না কোন সময়ে অনুভূ ও পূর্ণচন্দ্র প্রায় একই সময়ে সংঘটিত হয়, তাই এটি একটি নিয়মিত ঘটনা। অনুভূ পূর্ণিমা অপুভূ (দূরবর্তী) পূর্ণিমার চাইতে আকারে ১৪% ও উজ্জ্বলতায় ৩০% বেশি হলেও খালি চোখে সেটা নির্ণয় করা কঠিন।

তিনি বলেন, তবুও ২৩ জুনের পূর্ণিমার উজ্জ্বল চাঁদ অবলোকনের মাধ্যমে আমরা পৃথিবীর সঙ্গে এই প্রাকৃতিক উপগ্রহটির সম্পর্ক জানতে আরো আগ্রহী হব। এ ঘটনায় পৃথিবীর উপর উল্লেখযোগ্য কোনো প্রভাব পড়বেনা, তবে স্বাভাবিকের তুলনায় জোয়ারের মাত্রা বেশি হতে পারে।

যারা টেলিস্কোপের মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করবেন তাদেরকে ফিল্টার ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এক্সপোজারের সময় ও অ্যাপারচার কমিয়ে চাঁদের ছবি তোলার জন্য এটি একটি ভাল সুযোগ।

এদিকে এই জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক ঘটনা যথাযথ ভাবে পর্যবেক্ষণের জন্য অনুসন্ধিৎসু চক্র কয়েকটি ক্যাম্পের আয়োজন করেছে। ঢাকার কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষণ ক্যাম্পটি অনুষ্ঠিত হবে শিশু একাডেমিতে।এ ক্যাম্পে ৮ ইঞ্চি স্মিড-ক্যাসিগ্রেইন টেলিস্কোপ ও ৪ ইঞ্চি মাকসুতভ ক্যাসিগ্রেইন টেলিস্কোপ থাকবে।

এছাড়াও ঢাকার বাইরে টেলিস্কোপের মাধ্যমে অনুসন্ধিৎসু চক্র ও অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটি অব রুয়েট যৌথভাবে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় খেলার মাঠে ও সিলেটে অনুসন্ধিৎসু চক্র সিলেট শাখা ৮৭ মজুমদারী অম্বরখানায় পৃথক ক্যাম্প- এর আয়োজন করেছে। ক্যাম্পগুলো ২৩ জুন সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটে শুরু হবে।

আগ্রহী ছাত্র-শিক্ষক ও জনসাধারারণকে ওই সময়ের মধ্যে ওই স্থানগুলোতে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন