চলতি মাসেই মূল পদ্মাসেতু নির্মাণের দরপত্র আহ্বান করা হবে বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধবার সচিবালয়ে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) অন্তর্ভূক্ত যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত এক সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প

0
36
Print Friendly, PDF & Email

চলতি মাসেই মূল পদ্মাসেতু নির্মাণের দরপত্র আহ্বান করা হবে বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার সচিবালয়ে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) অন্তর্ভূক্ত যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত এক সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘ইতোমধ্যেই অ্যাপ্রোচ রোডের দরপত্র আহবান করা হয়েছে। জুলাই মাসে প্রধানমন্ত্রী একসঙ্গে সবগুলো কাজের উদ্বোধন করবেন। বিশ্বব্যাংক প্যানেলের চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন পদ্মাসেতু নির্মাণে কোনো প্রভাব ফেলবে না।’

প্রসঙ্গক্রমে তিনি জানান, ‘আগামী অর্থবছরে পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করার জন্য যোগাযোগ মন্ত্রণালয়কে ৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।’

সদ্য প্রকাশিত বিশ্বব্যাংক তদন্ত প্যানেলের প্রতিবেদনে দুদকের তদন্ত প্রতিবেদনে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেনকে অভিযুক্ত না করায় এ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্ব ব্যাংকের তদন্ত দল কখনোই যোগাযোগমন্ত্রী বা সচিবের সঙ্গে কথা বলেনি। তারা অর্থমন্ত্রী, ইআরডি ও দুদকের সঙ্গে কথা বলেছে।’ তাই এ বিষয়ে কিছু জানতে হলে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের জানান, চলতি অর্থবছরে এডিপির আওতায় মোট ১৫৫টি প্রকল্পের বিপরীতে ৩ হাজার ৫৬১ কোটি ৪২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সভায় চলতি জুনের মধ্যে ৩০টি প্রকল্প সম্পন্ন করার সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। এগুলো যথা সময়েই শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘ঈদকে সামনে রেখে মহাসড়কে চাঁদাবাজি ও কিছু পরিবহণে বাড়তি ভাড়া আদায় প্রতিরোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। আগামী ২৫ জুন সড়ক উপদেষ্টা পরিষদের সভা আহ্বান করা হয়েছে। ওই সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’ 

শেয়ার করুন