ফুটবল মাঠে বিয়ে!

0
62
Print Friendly, PDF & Email

বন্ধুর বিয়ের উপহার কিনতে গিয়ে নাকাল হতে হয় অনেককেই। কোনটা সবচেয়ে জুতসই হবে ঠিক বুঝে ওঠা যায় না। তবে যদি বন্ধুর আগ্রহ, পছন্দ সম্পর্কে জানা থাকে, তাহলে হয়তো সহজ হয়ে যেতে পারে উপহার কেনার ওই কঠিন কাজটাই। যেমনটা হয়েছে ইংল্যান্ডের জন আভেসের বেলায়। তাঁর ফুটবল অনুরাগের কথা জানা ছিল বলেই অভিনব এক উপহার দিয়ে চমকে দেওয়া গেছে নবদম্পতিকে। ফুটবল-পাগল জন আভেসকে পুরো একটা ডাগআউট বেঞ্চই উপহার দিয়েছেন তাঁর বন্ধুস্বজনেরা।

খুব ছোটবেলা থেকেই ফুটবল খেলার পাগল আভেস। সমর্থন করেন ক্যামব্রিজ সিটিকে। বর্তমানে তিনি দলটির ফিজিও হিসেবে দায়িত্ব পালনও করছেন। দলের প্রতি আভেস এতই নিবেদিতপ্রাণ, বিয়ের অনুষ্ঠানটাও তিনি আয়োজন করেছিলেন প্রিয় ক্লাবের মাঠে। অন্যরা যেখানে বিয়ের পর চার্চের সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন, সেখানে ৫৯ বছর বয়সী আভেস নববধূকে নিয়ে ছবি তুলেছেন ডাগআউটে বসে।

এ রকম একজন ফুটবলপ্রেমী বিয়ের উপহার হিসেবে ডাগআউট বেঞ্চ পেয়ে যে প্রচণ্ড উচ্ছ্বসিত হবেন, তাতে আর অবাক হওয়ার কি আছে! কিছুটা বিস্ময় নিয়ে তিনি ব্রিটিশ দৈনিক ‘মেট্রো’কে বলেছেন, ‘১৯৬২ সালে যখন প্রথমে বাবার হাত ধরে এখানে খেলা দেখতে এসেছিলাম, তখন থেকেই আমি ক্যামব্রিজ সিটির ভক্ত। সত্তরের দশকের মাঝামাঝিতে আমি ক্লাবের সেক্রেটারি ছিলাম। আর এখন দায়িত্ব পালন করছি ফিজিও হিসেবে। আমি জানতাম যে ক্লাব অনেক জিনিস নিলামে বিক্রি করছে। আমার কোনো ধারণাই ছিল না যে বন্ধুরা আমার জন্য এই ডাগআউট কিনে ফেলবে। এটা আমার জন্য সত্যিই খুব চমকপ্রদ একটা ব্যাপার।’ 

মিসেস আভেস অবশ্য কিছুটা চিন্তিত বিশালাকার ডাগআউট বেঞ্চটি তাঁদের বাগানে কীভাবে জায়গা করে নেবে, সেটা নিয়ে। ৩৯ বছর বয়সী ক্যারোলিন বলেছেন, ‘আমাদের এটা দুই ভাগ করে ফেলতে হতে পারে। কারণ, এটা আমাদের বাগানের অর্ধেক জায়গা দখল করে নেবে।’ প্রিয় ক্লাবের ডাগআউট বেঞ্চটি দুই খণ্ডে ভাগ করতে গিয়ে না আবার ঝগড়া বেধে যায় আভেস দম্পতির! দ্য মেট্রো, ব্রিটেন।

শেয়ার করুন