ইন্টারনেট সুবিধা বৃদ্ধিতে দ. কোরিয়ার ঋণ সহায়তা

0
40
Print Friendly, PDF & Email

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের এনইসি-২ সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ সরকার ও দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি ফ্রেমওয়ার্ক ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এটি বাস্তবায়িত হবে ২০১৪ সালের মধ্যে।

বাংলাদেশের ইন্টারনেট সুবিধা বৃদ্ধি, ভিশন’২০২১ বাস্তবায়ন, ইনস্টলেশন অব ওয়ারলেস ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক এবং উপকূলীয় এলাকায় চতুর্থ প্রজন্মের (৪-জি) নেটওয়ার্ক চালু করার লক্ষ্যে এ ঋণ সহায়তা দেবে দক্ষিণ কোরিয়া।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কালাম আজাদ এবং দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের পক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত এইচ ই ইউনিয়ং লি উক্ত ঋণচুক্তি সই করেন।

স্বাক্ষরিত ফ্রেমওয়ার্ক চুক্তিতে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ৩০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ সহায়তা থেকে বাংলাদেশ সরকার আরও কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে দক্ষিণ কোরিয়ার সহায়তার প্রাথমিক আশ্বাস ব্যক্ত করেছে।

পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশের নির্ধারিত প্রাথমিক অগ্রাধিকার ক্ষেত্রসমূহে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করে বাংলাদেশ সরকারের ‘ভিশন ২০২১’ ও ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার।

এ ঋণচুক্তির আওতায় চলতি বছরে ৩ কোটি ৭৫ লাখ ডলার এবং পরবর্তীতে সাত কোটি ৭০ ডলার সহায়তা দেবে।

চুক্তির আওতায় গৃহীত প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে সামুদ্রিক যান চলাচল ব্যবস্থা আধুনিকায়ন করা হবে।

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা এবং ইন্টারনেট ব্যবস্থায় যুগান্তকারী অধ্যায়ের সূচনা হবে বলে মনে করে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার।

শেয়ার করুন