কোনো ইস্যু ধরে সংসদ বর্জন করবেন না: সুরঞ্জিত

0
94
Print Friendly, PDF & Email

প্রধান বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে তুচ্ছ কারণে সংসদ বর্জন না করার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত।

খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি বিরোধীদলীয় নেতাকে বলবো সংসদে আসুন। বক্তৃতা করুন। সেই সঙ্গে অন্যের কথা শুনুন। বিগত দিনের মতো প্রায় দুই ঘণ্টা বক্তৃতা করে চলে যাবেন না। নিজে যেমন সমালোচনা করবেন, তেমনি অন্যের সমালোচনার তীরও আপনার ওপরে আসবে এবং তা সহ্য করতে হবে। তুচ্ছ কারণে সংসদ বর্জন করবেন না।’

সোমবার সকালে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু একাডেমী ঢাকা জেলা শাখার আয়োজিত ‘সংসদ অধিবেশন-বিরোধী দলের যোগদান-দেশবাসীর ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

সুরঞ্জিত বলেন, ‘গণতন্ত্র অর্থবহ করতে হলে শুধু সরকার নয়, বিরোধী দলকেও ভূমিকা রাখতে হবে। আমি চাইবো তারা সংসদে এসে সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করবেন। দেশের মানুষ সরকারি দল ও বিরোধী দলের বক্তব্যে সত্য উদঘাটন করতে পারবে।’

বিরোধী দলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘কোনো ইস্যু ধরে সংসদ বর্জন করবেন না। বিরোধী দল সংসদের অংশ। একটি কাঁচির যেমন দুইটি ধার, তেমনি সংসদেরও দুইটি ধার। একটি বাইসাইকেলের যেমন দুইটি চাকা, তেমনি সংসদেরও দুইটি চাকা সরকারি দল ও বিরোধী দল। সংসদ কার্যকর করতে হলে উভয় দলকেই দায়দায়িত্ব নিতে হবে।’

বিএনপির এক সংসদ সদস্যের চলতি অধিবেশনে দেয়া মুলতবি প্রস্তাব প্রসঙ্গে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে বিরোধী দলের এক সংসদ সদস্য তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনার জন্য মুলতবি প্রস্তাব দিয়েছেন। এটি সংবিধানের কার্যপ্রণালী বিধির ৬২ অনুচ্ছেন অনুযায়ী এ অধিকার তা অবশ্যই আছে। সেই বিধি মোতাবেকই মাননীয় স্পিকার সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি মোতাবেক সিন্ধান্ত নেবেন। আমি এ নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না।’

ঘোষিত চার সিটি করপোরেশন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘সিটি নির্বাচন রাজনীতি নিরপেক্ষ হওয়ার কথা ছিল। যদিও স্থানীয় সরকার। কিন্তু  এটি রাজনৈতিক হয়ে গেছে। চারটিতেই বিএনপি-আওয়ামী লীগ প্রার্থী দিয়েছে। আমরা ও দেশবাসী আশা করি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। এটা নির্বাচন কমিশনের জন্যও এসিড টেস্ট। তাদের প্রমাণ করতে হবে তারা অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করার ক্ষমতা রাখে। তাদের যথেষ্ট প্রশাসনিক ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। সুষ্ঠু ভোটার তালিকা আছে।’

বঙ্গবন্ধু একাডেমী ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি ফাতেমা জামান সাথীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন- কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সামসুল হক রেজা, মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার, বঙ্গবন্ধু একাডেমীর নেতা হুমায়ন করিম মিজি, আসাদুজ্জামান দুর্জয় প্রমুখ।

শেয়ার করুন