বিশ্বে প্রতিদিন ২০ হাজার শিশু অনাহারে মারা যাচ্ছে

0
70
Print Friendly, PDF & Email

বিশ্বে প্রতিদিন পাঁচ বছরের কম বয়সী ২০ হাজার শিশু না খেয়ে মারা যাচ্ছে বলে জাতিসংঘ খাদ্য ও কৃষি সংস্থার তথ্যে জানা গেছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের এক সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ পাঠকালে এ কথা জানান পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের (পবা) সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পরিবেশ অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক প্রকৌশলী  মো: আবদুস সোবহান।
 
মূল প্রবন্ধে বলা হয়, বিশ্বে প্রতি বছর ১ দশমিক ৩ বিলিয়ন টন খাদ্য নষ্ট হয়। খাদ্য যোগানে যখন সংগ্রাম চলছে তখন উৎপাদনের মোট তিন ভাগের এক ভাগ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে উন্নয়নশীল দেশগুলোর ওপর।

৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবসে এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে ‘ভেবে চিন্তে খাই, অপচয় কমাই’।

অসচেতনভাবে জমিতে রাসায়নিক ও কীটনাশক ব্যবহারের প্রক্রিয়ায় কৃষি জমি ও পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে। তৃতীয় বিশ্বে জমির উর্বরতা হ্রাস পাওয়ায় উদ্বাস্তু বেড়ে চলেছে।
 
প্রবন্ধে প্রকৌশলী  মো: আবদুস সোবহান আরও বলেন, “উপকূলীয় কৃষি জমির ক্ষেত্রে ধান-মাছ একত্রে চাষ করা হলে এক দশকের মধ্যে বাংলাদেশকে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত দেশে পরিণত করা সম্ভব হবে। দেশে বর্তমানে ২৭ শতাংশ মানুষ পুষ্টিহীনতায় ভুগছে।”
 
অনুষ্ঠানে পবার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান ময়নার নেতৃত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আইন কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম শাহ আলম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এম এম সফিউল্লাহ, পবার সাধারণ সম্পাদক কামাল পাশা চৌধুরীসহ অন্যান্যরা।
 
বাংলাদেশ আইন কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম শাহ আলম বলেন, “আমরা খাদ্যের অধিকার নিশ্চিত করতে আইন করার চেষ্টা করছি। যাতে পরিবেশ ইস্যু বিশেষভাবে কার্যকর হয়। আমরা চেষ্টা করছি, কিভাবে দূষণমুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায়। এ বিষয়ে সরকারকে একটি প্রস্তাব দেওয়া হবে । কিন্তু মূল সমস্যা হলো, বাস্তবায়ন করা। আর বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজন সামাজিক আন্দোলন।”

শেয়ার করুন