সাকিব এখন এলিট ফোর্সের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর

0
95
Print Friendly, PDF & Email

ক্রিকেটে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান স্থানীয় সিকিউরিটি কোম্পানি এলিট ফোর্সের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

২০১৩ সালের ২৬ মে বারিধারায় এলিট টাওয়ারে এ কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ে ক্রিকেটে বিশ্বনন্দিত অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান এলিট ফোর্সের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে চুক্তি পত্রে স্বাক্ষর করেন।

এই চুক্তি অনুযায়ী সাকিব এলিট ফোর্সের বিভিন্ন সেবা ও পণ্যগুলো বাংলাদেশের সর্বত্র উপস্থাপন করবেন।

এদিকে, চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সময় সেখানে কোম্পানির পরিচালক শরীফ শাহাম, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক লে. কর্নেল জাহাঙ্গীর আকতার চৌধুরী, পরিচালক রেজোয়ানা শারমীন ও অতিরিক্ত পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

পুরো কার্যালয় (আইটি, এইচআর, গার্মেন্ট, অপারেশন, মার্কেটিং) পরিদর্শনের পর সাকিব কোম্পানির দুইশ’ কর্মকর্তার সামনে বক্তব্য রাখেন, এখানে তিনি এলিট ফোর্সের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পেরে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

সাকিব তার নিজ জেলা মাগুরাকে এলিট ফোর্সের বিস্তৃতি মানচিত্রে দেখে বিশেষভাবে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

এসময় সাকিব বলেন, ‘‘সারাদেশে জনগণের নিরাপত্তা কাজে নিয়োজিত হাজার হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীর প্রতি আমার অসীম শ্রদ্ধা’’।

পরে বিনোদন কক্ষে কর্মকর্তাদের সঙ্গে ডার্ট এবং স্নুকার খেলে সাকিব এলিট টাওয়ার পরিদর্শন শেষ করেন।

এলিট ফোর্স, বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় ১৪ হাজারেরও বেশি কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এই কোম্পানি ১৪শ’ এরও বেশি স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক সংস্থায় তাদের সেবা দিচ্ছে, এই কোম্পানি বিগত বছরগুলোতে উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নতি করেছে।

এলিট ফোর্স এদেশের যুব সমাজের উন্নতির জন্য অগ্রণী ভূমিকা রেখে ও তাদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত বোধ করে। এর ফেসবুক ফ্যান পেজটি অন্য যে কোন সিকিউরিটির কোম্পানির তুলনায় উন্নত।

যার ফ্যান সংখ্যা এক লাখ ৩৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। পেজটিতে নিয়মিতভাবে নিরাপত্তা বিষয়ক তথ্য ও পরামর্শ দেওয়া হয়।

এই কোম্পানি সাকিব আল হাসানকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পেয়ে অত্যন্ত গর্বিত।

শেয়ার করুন