ইতিহাস গড়েছে গ্যালাক্সি এস ৪!

0
112
Print Friendly, PDF & Email

স্যামসাং কর্তৃপক্ষের দাবি করেছে তাঁদের তৈরি গ্যালাক্সি সিরিজের সর্বশেষ স্মার্টফোন ‘গ্যালাক্সি এস ৪’ বিক্রিতে ইতিহাস গড়েছে। মাত্র এক মাসেরও কম সময়ে এক কোটি ইউনিট বিক্রি হয়েছে এ স্মার্টফোনটি। ২৭ এপ্রিল স্মার্টফোনটি সারা বিশ্বে আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করেছিল দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। এক খবরে এ তথ্য জানিয়েছে সিডনি মর্নিং হেরাল্ড।
স্যামসাং জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে গ্যালাক্সি এস ৪ স্মার্ট ফোনটি প্রতি চার সেকেন্ডে একটি করে বিক্রি হচ্ছে। প্রতিদ্বন্দ্বী এইচটিসির স্মার্টফোনের চেয়ে এ বিক্রির হার দ্বিগুণ।
এর আগে স্যামসাংয়ের তৈরি গ্যালাক্সি এস ৩ স্মার্ট ফোনটি সবচেয়ে দ্রুত বিক্রি হওয়া অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর মুঠোফোনের রেকর্ড গড়েছিল। ২০১২ সালে এস ৩ স্মার্টফোনটির এক কোটি ইউনিট বিক্রি হতে ৫০ দিন সময় লেগেছিল।
স্যামসাংয়ের মোবাইল বিভাগের কর্মকর্তা জে কে শিন জানিয়েছেন, বর্তমানে এক কোটি মানুষের হাতে রয়েছে গ্যালাক্সি এস ৪। স্যামস্যাং ভবিষ্যতে উদ্ভাবনী স্মার্টফোন তৈরিতে কাজ করে যাবে।
এদিকে, গ্যালাক্সি এস ৪ স্মার্টফোনটির প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ধরা হচ্ছে এইচটিসির তৈরি ‘এইচটিসি ওয়ান’ স্মার্টফোনটিকে। এইচটিসির কর্মকর্তারা জানিয়েছে গত এক মাসে ৫০ লাখ ইউনিট এইচটিসি ওয়ান বিক্রি হয়েছে।
স্যামসাংয়ের কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, অ্যাপলের তৈরি আইফোনকে চ্যালেঞ্জ করে গ্যালাক্সি এস ৪ স্মার্টফোনটি বাজারে আনার পর বিশ্বের ৬০ টি দেশে এ স্মার্টফোনটি বিক্রি শুরু হয়েছে। ১৫৫ টি দেশে ৩২৭ টি মুঠোফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করে এ স্মার্টফোনটি বিক্রির পরিকল্পনা করেছে বিশ্বের বৃহত্তম স্মার্টফোন নির্মাতা হিসেবে খ্যাতি পাওয়া স্যামসাং।
বাংলাদেশে ১৮ মে গ্রামীণ ফোনের সঙ্গে এক চুক্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্যালাক্সি এস ফোরের উদ্বোধন করেছে স্যামসাং। দেশে ৬৭ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করছে স্মার্টফোনটি।
এদিকে, বাজার বিশ্লেষকেরা ধারণা করছেন, এস ৪ স্মার্টফোনটির বিক্রি রেকর্ড ছোঁয়ায় বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিক অর্থাত্ এপ্রিল থেকে মে এ তিন মাসে প্রচুর লাভ ও বাজারে ব্যাপক দখল নেবে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠানটি। জেপি মরগানের প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা ধারণা করছেন, চলতি প্রান্তিকে অ্যাপলকে ছাড়িয়ে যাবে স্যামসাং।

শেয়ার করুন